দক্ষিণ সুরমা ও উপশহর থেকে মাদকসহ ৭ বিক্রেতা গ্রেফতার

স্টাফ রিপোর্টার :
দক্ষিণ সুরমা ও শাহজালাল উপশহর থেকে ইয়াবা ট্যাবলেট ও চোলাই মদসহ ৭ মাদক বিক্রেতাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গত দু’দিন মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ ও থানা পুলিশ পৃথক পৃথক অভিযান চালিয়ে তাদেরকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃতদের আদালতের মাধ্যমে কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে বলে পুলিশ জানিয়েছে।
গ্রেফতারকৃতরা হচ্ছে- ঠিকানাবিহীন ময়না রবি দাস (৩৮), রেনু মিয়া (২৬), মো: বাবুল (২৮) ও মো: মিলন (২৯), ফেঞ্চুগঞ্জ থানার ঘিলাছড়া এলাকার মৃত সবুর আলীর পুত্র সাজ্জাদ মিয়া (২০), দক্ষিণ সুরমা থানার পিরোজপুর গ্রামের মৃত ময়না মিয়ার পুত্র কয়েছ আহমদ উরফে লেংড়া কয়েছ (৪৮) ও চাপাইনবাবগঞ্জ সদর থানার দেবীনগর ইউনিয়নের হরমা গ্রামের মো: শফিকুল ইসলামের পুত্র বর্তমানে রাজশাহী জেলা গোদাগাড়ী থানার মেডিকেল মোড়ের বাসিন্দা মো: জোহরুল ইসলাম জুয়েল (২৭)।
পৃথক প্রেসবিজ্ঞপ্তিতে পুলিশ জানায়, মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের পরির্দশক অকিল উদ্দিন আহমদ ও এএসআই আলম মেহেদীর নেতৃত্বে ডিবি পুলিশের একটি টিম গত ৯ জুন রাত সাড়ে ১০ টার দিকে দক্ষিণ সুরমা থানার পুরাতন রেলওয়ে স্টেশন এলাকায় অভিযান চালিয়ে ৫৮ লিটার চোলাই মদ সহ ময়না রবি দাস, রেনু মিয়া, মোঃ বাবুল, মোঃ মিলনকে গ্রেফতার করে। গ্রেফতারকৃত মাদক ব্যবসায়িরা বিভিন্ন স্থান হতে মাদক সংগ্রহ করে ঘটনাস্থল এলাকা সহ সিলেট শহরের বিভিন্ন মাদক সেবীদের নিকট তা বিক্রি করে থাকে। ইন্সঃ অকিল উদ্দিন আহম্মদ গ্রেফতার মাদক ব্যবসায়িদের আসামী করে দক্ষিণ সুরমা থানায় এজাহার দায়ের করলে তাদের বিরুদ্ধে দক্ষিণ সুরমা থানার মামলা নং- ১০ (১০-৬-১৮) রুজু হয়।
এদিকে, মহানগর গোয়েন্দা শাখার পুলিশ পরির্দশক জিএম হামিদুর রহমান ও এসআই মোহাম্মদ জানু মিয়ার নেতৃত্বে ডিবি পুলিশের একটি টিম গত ৮ জুন রাত সাড়ে ১০ টার দিকে দক্ষিণ সুরমা থানার লাউয়াই বঙ্গবীর রোডস্থ শাহজালাল ফুড কর্ণার এর সামনে অভিযান পরিচালনা করে ২০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেটসহ কয়েছ আহমদ উরফে লেংড়া কয়েছ ও মোঃ জোহরুল ইসলাম জুয়েলকে গ্রেফতার করে। ধৃত কয়েছ গত ২০১৬ সালেও মহানগর ডিবি পুলিশ কর্তৃক মাদক ও অস্ত্রসহ গ্রেফতার হয়। প্রাথমিকভাবে তাদের অপর মাদক ব্যবসায়ি ফরিদা বেগম (৫৫) এর নিকট হতে মাদক ইয়াবা ক্রয় করেন মর্মে স্বীকার করে তারা। গ্রেফতারকৃতদের আসামী করে এসআই মোহাম্মদ জানু মিয়া দক্ষিণ সুরমা থানায় মামলা দায়ের করেছেন।
অপরদিকে, দেশব্যাপী অবৈধ মাদকদ্রব্য উদ্ধার অভিযানে শাহপরাণ (রহঃ) থানার এসআই রাজীব কুমার রায়, এএসআই হেলাল উদ্দিন সঙ্গীয় ফোর্স সহ মাদকদ্রব্য ইয়াবা ট্যাবলেট ক্রয় বিক্রয় করাকালে ২০ (বিশ) পিস ইয়াবাসহ মাদক ব্যবসায়ী সাজ্জাদ মিয়াকে গত ৯ জুন বিকেল পৌনে ৪ টার দিকে নগরীর শাহজালাল উপশহরস্থ ই ব্লক ২নং রোডের সম্মুখে মেইন রোডে রেলি ডিপার্টমেন্টাল স্টোরের সামনে থেকে গ্রেফতার করে। এ সময় সাজ্জাদ মিয়ার সহযোগী মাদক ব্যবসায়ী সুজন আহমদ (২৮) পালিয়ে যায়। পুলিশ দল গ্রেফতাকৃত মাদক ব্যবসায়ী সাজ্জাদ মিয়ার দেহ তল্লাশী করে তার পরিহিত প্যান্টের সামনের ডান পকেটে নীল রংয়ের পলিথিনের টুকরায় রক্ষিত ২০ (বিশ) পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। এ ব্যাপারে এসআই রাজীব কুমার রায় শাহপরাণ (রহঃ) থানায় বাদী হয়ে ধৃতসহ পলাতকদের বিরুদ্ধ মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা দায়ের করেছেন।