রবীন্দ্র-নজরুল জন্মবার্ষিকী উদ্যাপন

সিলেটে যথাযোগ্য মর্যাদায় বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর এর ১৫৭তম এবং জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম এর ১১৯তম জন্মবার্ষিকী উদ্যাপিত হলো। রবীন্দ্র-নজরুল জন্মবার্ষিকী উদ্যাপন উপলক্ষে জেলা প্রশাসন ও জেলা শিল্পকলা একাডেমি, সিলেটের উদ্যোগে ৬ জুন সকাল ১১টায় রিকাবীবাজারস্থ কবি নজরুল অডিটোরিয়ামে আয়োজন করা হয় আলোচনাসভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের। এতে সিলেটের জেলা প্রশাসক নুমেরী জামানের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিভাগীয় কমিশনার ড. মোছাম্মৎ নাজমানারা খানুম। আলোচনা সভার প্রারম্ভে স্বাগত বক্তব্য রাখেন জেলা কালচারাল অফিসার অসিত বরণ দাশ গুপ্ত। অনুষ্ঠানে ‘জাতীয় জাগরণে কবি নজরুল’ এবং ‘রবীন্দ্রনাথের সৃষ্টিকর্মে শিলাইদহের প্রভাব’ শীর্ষক আলোচনা পর্বে মুখ্য আলোচক হিসেবে বক্তব্য রাখেন যুগ্মসচিব ও জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রীর একান্ত সচিব এ এফ এম হায়াতুল্লাহ এবং মদনমোহন কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক ডক্টর আবুল ফতেহ ফাত্তাহ। আবৃত্তিশিল্পী সৈয়দ সাইমুম আনজুম ইভান-এর উপস্থাপনায় আলোচনা পর্ব শেষে রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর ও কাজী নজরুল ইসলাম রচিত গান-কবিতার সমন্বয়ে সংক্ষিপ্ত সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশিত হয়। এতে বিশিষ্ট সংগীতশিল্পী রাণা কুমার সিন্হা ও পূর্ণিমা দত্ত রায় এবং বিশিষ্ট আবৃত্তিশিল্পী মোকাদ্দেস বাবুল ও আমিনুল ইসলাম চৌধুরী একক পরিবেশনায় অংশগ্রহণ করেন। জেলা শিল্পকলা একাডেমির প্রশিক্ষক অরুণ কান্তি তালুকদার ও প্রতীক এন্দের পরিচালনায় দলীয় সংগীত পরিবেশন করে একাডেমির সংগীত শিশু ও সাধারণ বিভাগের প্রশিক্ষণার্থীরা। প্রশিক্ষক বিজয় রায়ের পরিকল্পনায় আয়োজনটির মঞ্চসজ্জার দায়িত্ব পালন করেন একাডেমির চারুকলা বিভাগের শিক্ষার্থীরা। বিজ্ঞপ্তি