কমলগঞ্জ-মুন্সীবাজার সড়কে বাসের চাকায় পিষ্ট হয়ে একজনের মর্মান্তিক মৃত্যু

কমলগঞ্জ থেকে সংবাদদাতা :
মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ-মৌলভীবাজার সড়কের ভটের মিল নামক এলাকায় বাসায় চাকায় পিস্ট হয়ে এক এনজিও কর্র্মীর মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে। শনিবার সকাল সাড়ে ১০ টায় এ ঘটনাটি সংঘটিত হয়।
কমলগঞ্জ থানা পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, ঢাকা মেট্রো জ ১১-২৮৯৬ নাম্বারের বাসটি কুরমা থেকে মৌলভীবাজার যাবার সময় সকাল সাড়ে ১০ টার দিকে কমলগঞ্জ উপজেলার মুন্সীবাজারের অদুরে ভটের মিল এলাকা অতিক্রম করছিল। হঠাৎ বাসটি খড় পরিবহন করা একটি ঠেলা গাড়ীকে ধাক্কা দেয়। এতে ঠেলা গাড়ীর পিছনে থাকা কুলাউড়ার শরীফপুর ইউনিয়নের তিলকপুর গ্রামের সুধীর ভট্টাচার্য্যর পুত্র উত্তম ভট্টাচার্য্য পিংকু (৫০) বাসের চাকার নিচে পড়ে যান। তখন চালক বাস না থামিয়ে প্রায় ১০-১৫ হাত জায়গা উত্তমকে থেথলিয়ে নিয়ে যান। এতে ঘটনাস্থলেই উত্তমের মৃত্যু হয়। নিহত উত্তম সূর্যের হাসি ক্লিনিকে কর্মরত ছিলেন। খবর পেয়ে কমলগঞ্জ থেকে ফায়ার সার্ভিসের একটি দল ও কমলগঞ্জ থানার ওসি (তদন্ত) নজরুল ইসলামের নেতৃত্বে পুলিশের একটি দল ঘটনাস্থলে যায়। ওসি নজরুল ইসলাম জানান, লাশের সুরতহাল রিপোর্ট তৈরী করে ময়নাতদন্ত সম্পন্ন করা হবে। ঘাতক চালক পালিয়ে গেলেও বাস আটক করা হয়েছে।
উল্লেখ্য, উত্তম ভট্টাচার্য্য (পিংকু) কমলগঞ্জ উপজেলার রহিমপুর ইউনিয়নের দেবীপুর গ্রামে শ^শুর দূর্গেশ ভট্টাচার্য্যরে বাড়ীতে থাকতেন। তাঁর স্ত্রী ও ২ মেয়ে রয়েছে। এলাকায় শোকের মাতম দেখা দিয়েছে।