লা-মাযহাবীদের অপতৎপরতা বন্ধে উলামা পরিষদের মতবিনিময় সভা ॥ লা-মাযহাবীদের মূলোৎপাটন করা ঈমানের দাবী

ইসলামের মৌলিক আক্বিদাহগুলো মুসলমানদের অস্তিত্বের মূল সম্পদ। মৌলিক বিষয়গুলোর মধ্যে বিভ্রান্তিমূলক ও অহেতুক চিন্তা-চেতনা প্রবেশ করলেই ইসলামের ভিত্তি নষ্ট হয়ে যায়। তথাকথিত আহলে হাদীস নামধারী লা-মাযহাবীরা সেই বিশ্বাসের মূলে আঘাত করে মুসলমানের মূল্যবান সম্পদ ঈমানকে নষ্ট করার ষড়যন্ত্র করছে। যুবক ও মহিলাদেরকেও তারা বিভ্রান্ত করছে। ইসলাম ও মুসলমানের স্বার্থে এদের অস্তিত্বের মূলোৎপাটন করা ঈমানের দাবী। মুসলমানদের কালিমাকে নিয়েও তারা ফিতনামূলক অপপ্রচার করছে। আধ্যাত্মিক নগরী সিলেটের পবিত্র রক্ষার স্বার্থে এদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা করতে হবে।
উলামা পরিষদ বাংলাদেশ-এর উদ্যোগে আহলে হাদীস নামধারী লা-মাযহাবীদের অপতৎপরতা বন্ধের দাবীতে সিলেটের বিভিন্ন রাজনীতিবিদ ও পেশাজীবীদের সাথে আয়োজিত মতবিনিময় সভায় বক্তারা এ কথা বলেন।
পরিষদের সভাপতি, দরগাহ মাদরাসা, সিলেট-এর মুফতি মাওলানা আবুল কালাম যাকারিয়ার সভাপতিত্বে গত বৃহস্পতিবার রাতে নগরীর জেলরোডস্থ আনন্দটাওয়ারের মেট্রোপলিটন চেম্বার অব কমার্স হলে এই মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।
পরিষদের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাওলানা মুহিবুর রহমান মিটাপুরীর সঞ্চালনায় মতবিনিময় সভায় বক্তব্য রাখেন পরিষদের উপদেষ্টাম-লীর সদস্য মুফতি মাওলানা মুহিব্বুল হক গাছবাড়ী, সহ সভাপতি প্রিন্সিপাল হাফিজ মাওলানা মজদুদ্দিন আহমদ, মাওলানা রেজাউল করীম জালালী, সিলেট সিটি কর্পোরেশনের সাবেক মেয়র বদর উদ্দিন আহমদ কামরান, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আশফাক আহমদ, সিলেট মেট্রোপলিটন চেম্বার অব কমার্সের সভাপতি হাসিন আহমদ, পরিচালক শফিউল আলম চৌধুরী নাদেল, সিনিয়র সহ সভাপতি আব্দুল জব্বার জলিল, প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক মাওলানা খয়রুল হোসেন, দোকান মালিক সমিতির সভাপতি মতছির আলী, জাতীয় পার্টি সিলেট জেলার সহ সভাপতি আব্দুশ শহীদ লস্কর, জমিয়তে উলামায়ে ইসলামের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য মাওলানা আহমদ কবির, ইয়াকুবিয়া মাদরাসার ভাইস প্রিন্সিপাল মাওলানা কুতুবুল আলম, উলামা পরিষদের সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা শামসুদ্দিন মো. ইলিয়াস, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা হারুনুর রশীদ-আল-আযাদ, সদস্য রশিদ আহমদ, বাংলাদেশ খেলাফত মজলিস সিলেট মহানগর সভাপতি মাওলানা সিরাজুল ইসলাম সিরাজী, খেলাফত মজলিসের সহ সভাপতি আব্দুল হান্নান তাপাদার, ইসলামী ঐক্যজোট সিলেট মহানগর সভাপতি মুফতি ফয়জুল হক জালালাবাদী, জমিয়তে উলামায়ে ইসলামের সিলেট জেলা সভাপতি মাওলানা আতাউর রহমান কোম্পানীগঞ্জী, মহানগর ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাওলানা আব্দুর রহমান সিদ্দিকী, সার্ক ইন্টারন্যাশনাল স্কুল এন্ড কলেজের প্রফেসর মুহিউদ্দিন ফারুক, সোবহানীঘাট মাদরাসার নাজিমে তা’লিমাত মাওলানা হাফিজ আহমদ কবির, সিলেট মহানগর ব্যবসায়ী ঐক্যকল্যাণ পরিষদের সাধারণ সম্পাদক নাজমুল হক, জাতীয় ইমাম সমিতির সেক্রেটারী মাওলানা সিরাজুল ইসলাম, ব্রাক্ষ্ময়া বাজার ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি আতিক মিয়াসহ সিলেটের বিভিন্ন রাজনৈতিক এবং পেশাজীবী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। সভার শুরুতে পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত করেন উলামা পরিষদের নির্বাহী সদস্য আহমদ সগীর। উল্লেখ্য, নগরীর কুমারপাড়ায় অবস্থিত আত তাকওয়া সেন্টারে আস্তানা গড়া এই আহলে হাদীস নামধারী লা-মাযহাবীরা তারাবীর নামাজ বিশ রাকায়াতের বদলে আট রাকাতের অপপ্রচার চালাচ্ছে। এর মাধ্যমে সাধারণ মুসলমান ও যুবক সমাজকে গোমরাহির পথে ঠেলে দিচ্ছে। মতবিনিময় সভায় তাদের আস্তনাসহ যাবতীয় কর্মকান্ড অবিলম্বে বন্ধ করার জন্য প্রশাসনসহ সকল স্তরের তৌহিদী জনতার প্রতি আহবান জানানো হয়। বিজ্ঞপ্তি