সিলেট প্রেসক্লাবে পাল্টা সংবাদ সম্মেলনে আশিকের দাবি ॥ ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের সুনাম নষ্ট করতেই নানা কুৎসা রটাচ্ছে ছাতকের বাবুল

স্টাফ রিপোর্টার :
ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের সুনাম নষ্ট করতেই একটি মহলের সহযোগিতায় সংবাদ সম্মেলনসহ বিভিন্ন ভাবে তার বিরুদ্ধে কুৎসা রটানো হচ্ছে বলে দাবি করেছেন সুনামগঞ্জের ছাতক উপজেলার জামুরাইল গ্রামের হাজী ইদ্রিস আলীর ছেলে ও নগরীর আম্বরখানার আল-রহমান ট্রাভেল ইন্টারন্যাশনালের স্বত্বাধিকারী আশিকুর রহমান। তিনি এও দাবি করেন, শাহীনুর রহমান বাবুলের সাথে তার কোন ব্যক্তিগত বিরোধ নেই এবং তিনি তার নুন্যতম ক্ষতিও করেননি। তারপরেও গত ১৫ মে সংবাদ সম্মেলন করে আমার বিরুদ্ধে নানা অপবাদমূলক অপ-প্রচার চালায় সে; যা বিভিন্ন গণমাধ্যমেও প্রকাশিত হয়েছে। মূলত বাবলুর এমন অপপ্রচারের প্রতিবাদ এবং তার জীবনের নানা অপকর্ম তুলে ধরতেই তিনি এ পাল্টা সংবাদ সম্মেলন করছেন বলে দাবি করেন।
গতকাল শনিবার বিকেলে সিলেট প্রেসক্লাবের আমীনুর রশীদ চৌধুরী মিলনায়তনে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে লিখিত সংবাদ সম্মেলনে আশিকুর রহমান বলেন, তিনি বাংলাদেশ সরকারের সিভিল এভিয়েশন-এর অনুমোদন নিয়ে ট্রাভেল ব্যবসা করে আসছেন। পাশাপাশি তিনি মেঘনা গ্রুপের ছাতক থানার ডিস্ট্রিবিউটর হিসেবে ব্যবসা করে আসছেন। এছাড়া শাহজালাল এন্টারপ্রাইজ নামের একটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের মালিকও তিনি। তিনি কোন ধরনের অবৈধ ব্যবসার সাথে জড়িত নন।
সংবাদ সম্মেলনে তিনি দাবি করেন, বাবলুর সাথে তার কোন বিরোধ নেই এবং ব্যক্তিগতভাবে কোনদিন তার কোন ক্ষতিও করেননি। তা সত্বেও বাবলু প্রেস কনফারেন্সের নামে তার বিরুদ্ধে বিষেদাগার প্রচার করেছে যার কোন যৌক্তিক কারণ ও হেতু নেই। তিনি বাবলুকে প্রতারক ও দালাল আখ্যা দিয়ে বলেন, বাবলুর পেশা হচ্ছে দালালী। আমার টাকা আত্মসাতকারী প্রতিপক্ষ আরজ আলীর পক্ষ হয়ে সে আমার বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন করিয়েছে। মূলত আরজ আলীর ভাড়াটিয়া দালাল হয়েই বাবলু মিথ্যার আশ্রয় নিয়ে এ সংবাদ সম্মেলন করে।
সর্বোপরি তার বিরুদ্ধে প্রতারক-দালাল বাবুলের এহেন অপপ্রচারের প্রতিবাদ জানিয়ে এ মিথ্যাচারের প্রতিকারে সরকার ও প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করেন তিনি।
সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন- মো. সমুজ মিয়া, মো. নুরুল হক, আবু বক্কর, আমরু মিয়া, মাওলানা আক্তার হোসেন, আব্দাল মিয়া, আবু সহিদ, আব্দুস সালাম।