কাল থেকে রোজা শুরু

কাজিরবাজার ডেস্ক :
দেশের আকাশে কোথাও ১৪৩৯ হিজরি সনের পবিত্র রমজান মাসের চাঁদ দেখা যায়নি। ফলে আগামীকাল শুক্রবার থেকে দেশে রমজান মাস গণনা শুরু হবে। সে হিসেবে আগামী ১২ জুন দিবাগত রাতে পবিত্র শবে ক্বদর পালিত হবে।
বুধবার সন্ধ্যায় বায়তুল মোকাররমে জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির এক সভায় এই সিদ্ধান্ত হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন ধর্মমন্ত্রী অধ্যক্ষ মতিউর রহমান।
সংবাদ সম্মেলনে ধর্মমন্ত্রী বলেন, বুধবার বাংলাদেশের কোথাও চাঁদ দেখার খবর আসেনি। তাই বৃহস্পতিবার ১৪৩৯ হিজরি সনের শাবান মাসের ৩০ দিন পূর্ণ হবে। রমজান মাস গণনা শুরু হবে শুক্রবার থেকে।
মন্ত্রী জানান, সব জেলা প্রশাসন, ইসলামিক ফাউন্ডেশনের প্রধান কার্যালয়, আবহাওয়া অধিদপ্তর এবং মহাকাশ গবেষণা ও দূর অনুধাবন প্রতিষ্ঠান থেকে প্রাপ্ত তথ্য নিয়ে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।
সভায় ধর্ম মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি বজলুল হক হারুন, ধর্ম মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. আনিছুর রহমান ও ইসলামিক ফাউন্ডেশনের মহাপরিচালক সামীম মোহাম্মদ আফজাল উপস্থিত ছিলেন।
মঙ্গলবার সৌদি আরবসহ মধ্যপ্রাচ্যের কোথাও রমজানের চাঁদ দেখা যায়নি। তখনই ধারণা করা হচ্ছিল, বাংলাদেশে আজ চাঁদ দেখা যাবে না। এছাড়া আকাশ মেঘাচ্ছন্ন থাকায় চাঁদ দেখার সম্ভাবনা ছিল খুবই ক্ষীণ।
আগামীকাল বৃহস্পতিবার রাত থেকেই শুরু হয়ে যাবে রোজার আনুষ্ঠানিকতা। এদিন এশার নামাজের পর শুরু হবে তারাবি। মসজিদে মসজিদে ঢল নামবে মুসল্লিদের। বেশির ভাগ মসজিদে এবারও খতমে তারাবি হবে। সব মসজিদে একই নিয়মে খতম তারাবি পড়ার আহ্বান জানিয়েছে ইসলামিক ফাউন্ডেশন।
বৃহস্পতিবার প্রথম রোজায় সেহেরির শেষ সময় ভোররাত ৩টা ৪৬ মিনিট। শুক্রবার ইফতার হবে সন্ধ্যা ৬টা ৩৯ মিনিটে।
রোজা ইসলাম ধর্মের অন্যতম স্তম্ভ। প্রত্যেক সুস্থ-সবল মুসলমানের জন্য এই রোজা ফরজ। এর অনেক তাৎপর্য ও ফজিলতের কথা কোরআন-হাদিসে পাওয়া যায়।
মুসলিম বিশ্বে প্রতি বছর অপূর্ব আবহে রমজান পালিত হয়। এই মাসে মুসলমানদের রুটিন পাল্টে যায়। বছরের অন্যান্য সময়ের তুলনায় ইবাদত-বন্দেগিতে বেশি মনোনিবেশ করেন তারা।
এদিকে সৌদি আরবে আজ ১৭ মে বৃহস্পতিবার থেকে পবিত্র রমজান মাস শুরু হবে। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় সৌদির চাঁদ দেখা কমিটি রমজান মাসের চাঁদ দেখতে পায়নি তাই আজ থেকে রমজান মাসের রোজা শুরু হবে।
সৌদি আরবের গণমাধ্যম জানায়, খারাপ আবহাওয়া ও ধূলার কারণে চাঁদ দেখা কমিটিকে বেশ বেগ পেতে হয়েছে। তবে দেশটির হাইকোর্ট বৈজ্ঞানিক রিপোর্ট বিশ্লেষণ করে রমজানের প্রথম দিন নির্ধারণ করে দেবেন।
এদিকে স্থানীয়ভাবে চাঁদ দেখার ভিন্নতা হিসেবে প্রথম রোজা বিশ্বে ভিন্ন ভিন্ন দিনে শুরু হয়ে থাকে। ইউরোপ ও আমেরিকায় মুসলমানরা জ্যোতির্বিজ্ঞানের ওপর নির্ভর করে রোজা পালন করে থাকেন। সেই হিসেবে আজ থেকেই রোজা পালন শুরু করতে পারেন তারা।
জ্যোতির্বিদরা হিসেব করে বলেছেন, রমজানের নতুন চাঁদ আন্তর্জাতিক সময় গ্রিনিচ মান অনুযায়ী ১১টা ৪৭ মিনিটে জন্ম নেবে। যা ওই সময়ে খালি চোখে দেখা যাবে না। তবে বিশেষ যন্ত্রের মাধ্যমে তা প্রথম রাতেই দেখা যেতে পারে। ২০১৭ সালে সৌদি আরব ও অন্যান্য আরব রাষ্ট্রগুলো নতুন চাঁদ দেখতে বিশেষ সুবিধাসম্পন্ন ক্যামেরা ব্যবহার করে আসছে।