কমলগঞ্জে অগ্নিকান্ডে পাঁচ লক্ষাধিক টাকার মালামাল পুড়ে ছাই

পিন্টু দেবনাথ কমলগঞ্জ থেকে :
মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জের ইসলামপুরে দুর্বৃত্তদের আগুনে পুড়ে ছাই হয়ে গেছে গৃহপালিত গরু ছাগল, আসবাবপত্র, কাপড় চোপড়, স্বর্ণালংকার, মূল্যবান কাগজপত্র ও নগদ টাকাসহ বসতঘর। পবিত্র শবেবরাতের দিন মঙ্গলবার (১মে) রাত দেড়টার দিকে ইসলামপুর ইউনিয়নের ছয়ঘরি গ্রামে ছয়ঘরি প্রাইমারী স্কুল সংলগ্ন কাঠমিস্ত্রী মিলন আহমেদের বসতঘর পুড়ে যায়। বুধবার সকালে সরজমিন গিয়ে ও মিলন আহমেদ (২৬), তার ছোট ভাই হীরক আহমেদ(২৪) ও মা রোকেয়া বেগমের (৫০) সাথে কথা বলে জানা যায়, এ সময় দুই ভাই স্থানীয় নইনারপার বাজারের মসজিদে শবেবরাত উপলক্ষে মিলাদ মাহফিল ও ইবাদত বন্দেগীতে ছিলেন এবং তাদের মা একা ঘরে নামাজ পড়ছিলেন। হঠাৎ ঘরে আগুন লাগলে তিনি চিৎকার দিলে প্রতিবেশী মহিলারা তাকে ঘর থেকে বের করে বাইরে নিয়ে আসেন। খবর পেয়ে মিলন ও হীরক বাড়ীতে ছুটে এসে দেখেন সব কিছু পুড়ে ছাই হয়ে গিয়েছে। এ প্রতিবেদকের সাথে আলাপকালে তারা দুই ভাই জানান, বাড়ীতে পুরুষ না থাকার সুযোগে সম্ভবত কেউ পেট্রোল বা কেরোসিন দিয়ে আগুন লাগিয়ে দিযেছে। ফলে মুহূতেই একটি গাভী, তিনটি ছাগল, বিক্রির জন্য তৈরি করা সোফাসেট, খাটসহ অন্যান্য আসবাবাপত্র, স্বর্ণালংকার, পরিধেয় পোষাক, মূল্যবান কাগজপত্রসহ পাচঁ লক্ষাধিক টাকার মালামাল ভস্মিভূত হয়। তবে কে বা কারা এ ঘটনা ঘটিয়েছে জানেন না। ইসলামপুর ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল হান্নান, ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, এটি একটি অমানবিক ঘটনা। তিনি ভুক্তভোগী পরিবারকে সার্বিক সহযোগীতা করার আশ্বাস দিয়েছেন। কমলগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোকতাদির হোসেন পিপিএম জানান, পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। অভিযোগ পেলে তদন্তক্রমে দোষীদের বিরুদ্ধে আইনী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।