গোলাপগঞ্জে মোটরসাইকেল চুরি করে নিয়ে যাওয়ার সময় আটক ১

গোলাপগঞ্জ থেকে সংবাদদাতা :
গোলাপগঞ্জে একের পর এক মোটরসাইকেল চুরির ঘটনা ঘটছে। এক মাসে দুটি মোটরসাইকেল চুরি ও আরেকটি চুরির চেষ্টাকালে একজনকে আটক করে স্থানীয় জনতা। গোলাপগঞ্জের হেতিমগঞ্জে তাইবা কমিউনিটি সেন্টার থেকে মোটরসাইকেল চুরি করে নিয়ে যাওয়ার সময় এনাম আহমদ (২৮) নামে আন্তঃজেলা চোর চক্রের এক সদস্যকে স্থানীয়রা আটক করে গণধোলাই দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করেছে। আটককৃত চোরচক্রের সদস্য দক্ষিণ সুরমা উপজেলার মোগলাবাজার থানার আলমপুর গ্রামের মৃত মানিক মিয়ার ছেলে। তার বিরুদ্ধে সিলেটের বিভিন্ন থানায় মোটরসাইকেল চুরির মামলা রয়েছে। পুলিশ সূত্রে জানা যায়,সিলেট ল-১১-৭১৩৪ নাম্বারের ১৬০সিসির পালসার মোটরসাইলে নিয়ে তাইবা কমিউনিটি সেন্টারে একটি বিয়ের অনুষ্ঠানে আসেন গোলাপগঞ্জ উপজেলার ফুলবাড়ী ইউপির বাগেরকলা গ্রামের মৃত আব্দুল কয়েছ দুলাল মিয়ের ছেলে মঈন আহমদ (৩০)। তিনি ঐ সেন্টারের সামনে তার বাইকটি রেখে ভিতরে খেতে বসেন। এ সময় চোরচক্রের ওই সদস্য নকল চাবি দিয়ে মোটরসাইকেলটি চালু করে নিয়ে যাওয়ার সময় সেন্টারের সামনে থাকা বরযাত্রীদের সন্দেহ হলে তাকে আটক করা হয়। এ সময় স্থানীয়রা তাকে গণধোলাই দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করলে পুলিশ তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে থানায় নিয়ে যায়।