বরইকান্দিতে জোড়া খুনের ঘটনায় আরো এক আসামী গ্রেফতার

স্টাফ রিপোর্টার :
দক্ষিণ সুরমার বরইকান্দিতে জোড়া খুনের ঘটনায় কোম্পানীগঞ্জ থেকে আরো এক আসামীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গত ৩১ মার্চ রাত আড়ার দিকে তেলিখাল এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করে দক্ষিণ সুরমা থানা পুলিশ। গ্রেফতারকৃতের নাম- মাসুক মিয়া (৫০)। সে কোম্পানীগঞ্জ থানার তেলিখাল গ্রামের গোলাম মোস্তফা উরফে গলই মিয়ার পুত্র।
গতকাল রবিবার পুলিশ গ্রেফতারকৃত মাসুক মিয়াকে সিলেট মহানগর ১ম আদালতের বিচারক মো: মামুনুর রশীদ সিদ্দিকীর আদালতে হাজির করে। পরে আদালত তাকে কারাগারে প্রেরণের নির্দেশ দেন। এ মামলায় এনিয়ে ৭ আসামী বর্তমানে কারগারে রয়েছে।
দক্ষিণ সুরমা থানার এসআই রিপন দাস জানান, গ্রেফতারকৃত আসামী মাসুক মিয়াকে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ঘটনা সংক্রান্ত তার সংশ্লিষ্টতা স্বীকার করে এবং বেশ কিছু তথ্যাদি প্রদান করেছে। তিনি বলেন, আসামীর দেয়া তথ্যাদি যাচাই-বাচাই করা হচ্ছে। মামলার তদন্ত অব্যাহত রয়েছে। প্রয়োজনে পরবর্তীতে বর্ণিত আসামীকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পুলিশ রিমান্ডের আবেদন প্রেরণ করবে বলে জানান তিনি।
উল্লেখ্য, গত ৬ মার্চ তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে আওয়ামী লীগের দুই পক্ষের সংঘর্ষ ও গুলি বিনিময়ের সময় স্বেচ্ছাসেবক লীগ ও যুবলীগের ২ নেতা খুন হন। এ ঘটনায় আহত হন অন্তত ৩০ জন। ওইদিন সকালে দক্ষিণ সুরমার বরইকান্দি ইউনিয়ন আ’লীগের সভাপতি গৌছ মিয়া ও কোম্পানিগঞ্জ উপজেলার তেলিরখাল ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান আ’লীগ নেতা আলফু মিয়ার সমর্থকদের মধ্যে এ সংঘর্ষ হয়। নিহতরা হলেন-বরইকান্দি ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগের একটি ওয়ার্ডের সহ-সভাপতি মাসুক মিয়া ও যুবলীগ নেতা বাবুল মিয়া। ৮ মার্চ সংঘর্ষে নিহত স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা বাবুল মিয়ার বড় ভাই সেবুল মিয়া বাদী হয়ে এ ঘটনায় ৯শ’ জনের বিরুদ্ধে দক্ষিণ সুরমা থানায় (৫-নংÑ) মামলা দায়ের করেন।