বিশ্বকাপ রেফারি লিস্টে নেই ইংলিশ লিগের কেউ

ক্রীড়াঙ্গন রিপোর্ট :
আসন্ন ২০১৮ বিশ্বকাপের জন্য রেফারি তালিকা ঘোষণা করেছে ফিফা। কিন্তু অবাক করার মতো ব্যাপার, ইউরোপিয়ান ক্লাব ফুটবলে সবচেয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ থেকে কেউই রাশিয়া ওয়ার্ল্ডকাপে প্রতিনিধিত্ব করার সুযোগ পাননি। ১৯৩৮ সালের পর এই প্রথম বিশ্বকাপে নেই কোনো ব্রিটিশ রেফারি।
৪৬টি দেশ থেকে ৩৬ জন রেফারি ও ৬৩ জন সহকারি রেফারি নিশ্চিত করেছে ফিফা রেফারি কমিটি। আগামী ১৪ জুন ৩২ দলের ফুটবল শ্রেষ্ঠত্বের ২১তম আসরের পর্দা উঠবে। মস্কোর লুজনিকি স্টেডিয়ামে কার হাতে উঠবে সোনালী ট্রফি তা জানা যাবে ১৫ জুলাই।
প্রিমিয়ার লিগ (ইপিএল) থেকে কারো সুযোগ না মিললেও আমেরিকার মেজর লিগ সকার (এমএলএস) থেকে দু’জন জায়গা করে নিয়েছেন। ওয়েলস, স্কটল্যান্ডকেও সঙ্গী হিসেবে পেয়েছে ইংল্যান্ড!
২০১৪ ব্রাজিল বিশ্বকাপের ফাইনালে রেফারির দায়িত্ব পালন করা নিকোলা রিজোলি অবসরে গেছেন। তার জায়গায় ইতালির প্রতিনিধি জিয়ানলুকা রচ্চি।
বাছাইকৃত অফিসিয়ালরা কভারসিয়ানোতে ইতালিয়ান ফুটবল ফেডারেশনের টেকনিক্যাল সেন্টারে প্রস্তুতিমূলক সেমিনারে অংশ নেবেন। যেখানে ভিডিও অ্যাসিস্ট্যান্ট রেফারি প্রার্থীদের জন্য ট্রেনিং যুক্ত থাকবে। মস্কোতে ওয়ার্ল্ডকাপ শুরুর ১০ দিন আগে শুরু হবে চূড়ান্ত সেমিনার।
অস্ট্রেলিয়া, বেলজিয়াম, পর্তুগাল ও দক্ষিণ কোরিয়ার লিগে ভিডিও অ্যাসিস্ট্যান্ট রেফারি (ভিএআর) থাকলেও বিশ্বকাপের রেফারি তালিকায় কেউ নেই। ইপিএলে চলতি মৌসুমে ইংলিশ এফএ কাপেও ভিএআর প্রযুক্তি পরিচয় করিয়ে দেওয়া হয়।
ঘরোয়া প্রতিযোগিতায় ইতালি ও যুক্তরাষ্ট্রের মতো ভিএআর পরীক্ষা করেছে জার্মানি ও পোল্যান্ড। বিশ্বকাপ মঞ্চেও তাদের রেফারি থাকছে। বলা বাহুল্য, এবারের বিশ্বকাপের অন্যতম আকর্ষণ হতে যাচ্ছে ভিডিও অ্যাসিস্ট্যান্ট রেফারি। ২০১৬ সালে ভিএআর প্রজেক্টের যাত্রা শুরু।শীর্ষ ইউরোপিয়ান লিগের জনপ্রিয় লা লিগা ও ইপিএলও সামনের মৌসুম থেকে হয়তো এই প্রযুক্তির পথে হাঁটবে।