জগন্নাথপুরে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে তরুণ নিহত

জগন্নাথপুর থেকে সংবাদদাতা :
জগন্নাথপুরে বিদ্যুৎ স্পৃষ্ট হয়ে আল আমিন (২০) নামের এক তরুণ নিহত হয়েছেন। তিনি জগন্নাথপুর পৌর এলাকার হবিবপুর গ্রামের শামসুল ইসলামের ছেলে। ঘটনাটি ঘটেছে জগন্নাথপুর পৌর শহরের স্লুইচ গেইটস্থ বিদ্যুৎ সাব-স্টেশন এলাকায়।
জানা গেছে, শুক্রবার সকালে একটি গাড়ি থেকে লোহার পাইপ নামানো কালে অসাবধানতাবশত: একটি লোহার পাইপের মাথা উপরে উঠে গিয়ে বিদ্যুৎ লাইনে লেগে গেলে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে গুরুতর আহত হন তরুণ আল আমিন ও মকদ্দছ আলী নামের ২ জন। আহতদের আশঙ্কাজনক অবস্থায় জগন্নাথপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে আল আমিনকে মৃত ঘোষণা করেন কর্তব্যরত চিকিৎসক। অপর আহত মকদ্দছ আলীকে ভর্তি করা হয়। এ খবর ছড়িয়ে পড়লে জগন্নাথপুর পৌরবাসীর মধ্যে শোকের ছায়া বিরাজ করছে। বিকেলে নামাজে জানাযা শেষে তাঁকে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়। এতে শোকার্ত এলাকাবাসী অংশ গ্রহণ করেন।
এদিকে-তরুণ আল আমিনের অকাল মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করে বিবৃতি দিয়েছেন জগন্নাথপুর উপজেলা প্রেসক্লাব নেতৃবৃন্দ। বিবৃতিদাতারা হলেন, সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর জগন্নাথপুর উপজেলা প্রেসক্লাবের সাংবাদিক উপদেষ্টা ও জগন্নাথপুর অনলাইন প্রেসক্লাব সভাপতি ওয়াহিদুর রহমান ওয়াহিদ, জগন্নাথপুর উপজেলা প্রেসক্লাব সভাপতি ডা. নয়ন রায়, সহ-সভাপতি কুহিনুর ওয়াহিদ, সাধারণ সম্পাদক মো. শাহজাহান মিয়া, যুগ্ম-সম্পাদক হিফজুর রহমান তালুকদার জিয়া, সাহিত্য সম্পাদক প্রভাষক মিছলুর রহমান, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক মীরজাহান মিজান, দৈনিক সিলেটের মানচিত্র প্রতিনিধি কলি বেগম, দৈনিক সিলেটের দিনরাত প্রতিনিধি আফজাল মিয়া প্রমুখ।
এছাড়া পৃথকভাবে বিবৃতি দিয়েছেন জগন্নাথপুর পত্রিকার সম্পাদক মুহাম্মদ ইয়াকুব মিয়া, জেপি নিউজ ডটকমের সম্পাদক রাশিদ আহমদ চৌধুরী মুরাদ, সংবাদকর্মী আলী জহুর, জগন্নাথপুর সংবাদপত্র বিক্রেতা সমিতির সভাপতি নিকেশ বৈদ্য, ব্যবসায়ী মনির হোসেন মুন্না, সুমন মিয়া প্রমুখ। বিবৃতিদাতারা শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানিয়ে মরহুমের রূহের মাগফেরাত কামনা করেছেন।