মাধবপুরে ২০ হাজার পিস ইয়াবাসহ একই পরিবারের আটক ৫

হবিগঞ্জ থেকে সংবাদদাতা :
হবিগঞ্জ জেলার মাধবপুর উপজেলায় একটি গাড়ি ও ৬০ লাখ টাকা মূল্যের ২০ হাজার পিস ইয়াবাসহ একই পরিবারের ৫ জনকে আটক করেছে পুলিশ। রবিবার দুপুরে প্রেস ব্রিফিংয়ে এই তথ্য নিশ্চিত করেন হবিগঞ্জের পুলিশ সুপার বিধান ত্রিপুরা। আটককৃতরা হলেন- সিলেটের কোতোয়ালি থানার গোয়াইপাড়া এলাকার মৃত ছন্দু মিয়ার ছেলে আবুল কালাম (৪৮), তার স্ত্রী মোছা. ফাতেমা (৩৮), মেয়ে রহিমা কালাম রুহী (২১), ছেলে ইমন আহমেদ (২৩) ও তার স্ত্রী শামীমা আক্তার শাম্মী। এছাড়া তাদের সাথে ৫ বছর বয়সী একটি শিশুও রয়েছে। তবে আটকরা বাউল শিল্পী বলে পুলিশকে জানান। পুলিশ সুপার জানান, রবিবার ভোরে মাধবপুর সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার এসএম রাজু আহমেদ ও মাধবপুর থানার ওসি চন্দন কুমার চক্রবর্তীসহ পুলিশ সদস্যরা গোপন সংবাদের ভিত্তিতে খবর পেয়ে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের মাধবপুর উপজেলার মুন্সী টাওয়ার এলাকায় একটি জীপ গাড়িকে আটক করলে এর চালক পালিয়ে যায়। পরে পুলিশ তল্লাশী চালিয়ে গাড়িটির ইঞ্জিনের ভেতরে লুকানো অবস্থায় ১০০টি প্যাকেট জব্দ করে। প্রতিটি প্যাকেট ২০০ পিস করে মোট ২০ হাজার পিস ইয়াবা জব্দ করা হয়। এ সময় গাড়িতে থাকা ৫জনকে আটক করে পুলিশ। আটকদের কাছ থেকে বাউল গানের সরঞ্জামাদি জব্দ করা হয়েছে। তারা পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে বলেছেন, সিলেট থেকে একটি গাড়ি ভাড়া করে চট্টগ্রামের ফটিকছড়িতে গিয়েছিলেন। সেখানে একদিন অবস্থানের পর ওই গাড়িতে করেই ফিরে আসছিলেন। তারা এই ইয়াবার ব্যাপারে কিছুই জানেন না। তবে তাদের কথাবার্তা সন্দেহজনক বলে তাদেরকে আটক করা হয়েছে বলে জানান তিনি।