খাদিমে ছাত্রলীগের দুই পক্ষের সংঘর্ষে গোলাগুলি, ককটেল বিস্ফোরণ, আহত ৫

স্টাফ রিপোর্টার :
শহরতলীর খাদিম বিসিক শিল্পনগরী এলাকায় ক্রিকেট খেলার ফলাফলকে কেন্দ্র করে ছাত্রলীগের দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষে ৫ জন আহত হয়েছেন। এদের মধ্যে ৩ জন গুলিবিদ্ধ হয়েছেন বলে জানা গেছে। গতকাল শুক্রবার রাত পৌনে ৭টার দিকে সিলেট-তামাবিল সড়কে বিসিকের গোলাইমিল এলাকায় এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এ সময় গোলাগুলি ও ককটলে বিস্ফোরণের ঘটনাও ঘটে। আহতদেরকে ওসমানী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এর মধ্যে গুলিবিদ্ধ এক ব্যবসায়ীও রয়েছেন। তবে তাৎক্ষণিকভাবে আহতদের পরিচয় জানা যায়নি।
এদিকে, সংঘর্ষের সময় ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে হামলা ও গাড়ি ভাংচুরের ঘটনা ঘটে। এর প্রতিবাদে সিলেট-তামাবিল সড়ক ১ ঘন্টা অবরোধ করে রাখেন স্থানীয় জনতা। পরে পুলিশের আশ্বাসের প্রেক্ষিতে অবরোধ তুলে নেন তারা।
স্থানীয় সূত্র জানায়, ক্রিকেট খেলার ফলাফলকে কেন্দ্র করে দু’পক্ষের মধ্যে উত্তেজনা চলছিলো। বিষয়টি বিচার পর্যন্ত গড়ায়। সন্ধ্যার পর রাতে এ নিয়ে দু’পক্ষ সংঘর্ষে জড়ায়। এ সময় গোলাগুলি ও কয়েকটি ককটেল বিস্ফোরণের ঘটনায় উভয় পক্ষের ৫ জন আহত হন। তবে একটি সূত্রে জানা গেছে, ছাত্রলীগের রকি-পঙ্কি ও আলাই গ্র“পের মধ্যে এ সংঘর্ষ হয়েছে বলে জানা যায়।
আরেকটি সূত্রে জানা গেছে খেলা নিয়ে দুই পক্ষের মধ্যে গত ২/১ দিন ধরে উত্তেজনা চলে আসছিল। বিষয়টি বিচারাধীন ছিল। বিচারাধীন থাকাবস্থায় একটি পক্ষ ক্রিকেট ম্যাচের ঘটনার জেরে এসে এই হামলার ঘটনাটি ঘটিয়েছে। তারা স্থানীয় ছাত্রলীগের দু’টি গ্র“পের সাথে জড়িত বলেও দাবি করেছেন একাধিক নির্ভরযোগ্য সূত্র।
শাহপরাণ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আখতার হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, সংঘর্ষের খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে যাওয়ার আগেই উভয় গ্র“পের নেতা-কর্মীরা পালিয়েছে। পরিস্থিতি এখন পুলিশের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে বলেও জানান তিনি।