শপিং ব্যাগে নবজাত শিশু

জাহাঙ্গীর আলম খায়ের বিশ্বনাথ থেকে :
শপিং ব্যাগে পাওয়া গেল জীবিত এক নবজাতক শিশু কন্যাকে। ব্যাগে করে জঙ্গলের মধ্যে ফেলে যাওয়া ৪৮ ঘন্টা বয়সী ওই নবজাতক শিশুটিকে নোয়ারাই গ্রামের নুর মিয়া নামের এক অটোরিক্সা চালককে লালন পালনের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার নুর মিয়ার সঙ্গে কথা হলে তিনি জানান নবজাতক শিশুটি সুস্থ রয়েছে। আগেরদনি বুধবার রাত ১০টার দিকে খাজাঞ্চি ইউনিয়নের মধনপুর গ্রামের পরিমল দাসের বাড়ির পার্শ্ববর্তি জঙ্গল (ঝোপ) থেকে ওই নবজাতক শিশুটিকে উদ্ধার করে থানা পুলিশ।
বিষয়টি নিশ্চত করে থানার ওসি শামসুদ্দোহা পিপিএম বলেন, আপাতত অটোরক্সিা চালক নুর মিয়ার নিকট নবকাতক শিশুটিকে দেওয়া হয়েছে। পরবর্তি আইনগত উপায়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।
কাদিপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা: তারেক নুরুল ইসলাম জানান, ২৪থেকে ৪৮ঘন্টা বয়সের ওই শিশুটির নাড়িতে নীল রংয়ের একটি ক্লাম (ক্লিপ) পরানো ছিল, তবে শিশুটি সুস্থ আছে।
জানা গেছে, নোয়ারাই গ্রামের নারায়ন দাসের ছেলে পশাল দাস স্থানীয় আমতৈল বাজার থেকে বাড়ি ফেরার পথে রাস্তার ঝোপের মধ্যে একটি শিশুর কান্না শুনতে পান। এ সময় মোবাইলের লাইট জালিয়ে দেখতে পান নীল রঙের একটি শপিং ব্যাগের ভেতরে ওই শিশুটি কান্না করছে। পরে স্থানীয় মেম্বার শফিক মিয়াসহ আশপাশের লোকজন মিলে পুলিশে খবর দেন। পরে শিশুটিকে উদ্ধারের পর কাদিপুরস্থ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে নবজাতক এ শিশু কন্যাকে চিকিৎসার ব্যবস্থা করেন।