সুধী সমাবেশে কমরেড খালেকুজ্জামান বভ আওয়ামীলীগ-বিএনপি দেশের গণতান্ত্রিক ভবিষ্যতকে ধ্বংস করেছে

দেশের সত্যিকার পরিবর্তনের জন্য বাম-গণতান্ত্রিক শক্তির উত্থানের বিকল্প নাই জানিয়ে বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল-বাসদ কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক কমরেড খালেকুজ্জামান বলেছেন, আওয়ামী লীগ-বিএনপি দেশের গণতান্ত্রিক ভবিষ্যতকে ধ্বংস করে চলেছে , তাই তাদের ফ্যাসিবাদী দুঃশাসনের বিরুদ্ধে গণআন্দোলন গড়ে তুলুন।
শুক্রবার বিকেল ৫টায় সিলেট দরগা গেইটস্থ শহীদ সুলেমান হলে অনুষ্ঠিত সুধী সমাবেশ প্রধান বক্তার বক্তব্যে তিনি এই কথা বলেন।
কমরেড খালেকুজ্জামান আরও বলেন, আজ ৫ জানুয়ারি। ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারি প্রার্থী ও ভোটারবিহীন কলংকময় নির্বাচন সংঘটিত হয়েছিলো। স্বৈরাচারী এরশাদের বিরুদ্ধে নয় বছরের জীবনক্ষয়ী লড়াইয়ের মধ্য দিয়ে অর্জিত ভোটের অধিকার ৫ জানুয়ারির নির্বাচনের মধ্যদিয়ে চূড়ান্ত ভাবে হরণ করা হয়েছে। এরশাদ স্বৈরাচারের পতনের পর দুই বছর বাদে পালাক্রমে দেশ পরিচালনা করেছে বিএনপি, আওয়ামী লীগ। বাকী দুই বছর দেশ চালিয়েছে সামরিক বাহিনী পৃষ্ঠপোষক তত্ত্বাবধায়ক সরকার। নির্বাচনী ব্যবস্থাকে গ্রহণযোগ্য ও আরো স্বচ্ছ করার পরিবর্তে এরাই পালাক্রমে ক্ষমতায় ফিরে আসার জন্য নানা রকম কূটচালের মাধ্যমে নির্বাচনী ব্যবস্থাকে জবরদস্তিমূলক, একতরফা পাতানো ও প্রশ্নবিদ্ধ করেছে। গণতন্ত্র ও ভোটাধিকারকে নির্বাসনে পাঠিয়েছে।
তিনি বলেন, নিম্ন আদালতের বিচারকগণের নিয়ন্ত্রণভার নির্বাহী বিভাগের কাছে রাখার মধ্য দিয়ে শাসকশ্রেণি তার ক্ষমতালোভী স্বরূপ উন্মোচন করেছে। মানুষের রটিরজির অধিকার ও গণতান্ত্রিক আন্দোলন দমন করা হচ্ছে কঠোর নিষ্ঠুরতায়। শ্রমিক আন্দোলন ও ট্রেড ইউনিয়ন অধিকার দমিয়ে রাখতে ব্যবহার করা হচ্ছে র‌্যাব, শিল্প পুলিশ। অবাধে চলছে গুম, খুন ও নারী-শিশু ধর্ষণের ঘটনায় বিচারহীনতার রেওয়াজ।
খালেকুজ্জামান বলেন, স্বাধীনতার পর থেকে এরাই দেশ শাসন করছে এরা নিজেদের ভাগ্যের পরিবর্তন সাধন করলেও দেশের সংখ্যাগরিষ্ঠ মানুষের ভাগ্যের কোন পরিবর্তন আনতে পারেনি। এরশাদের পতনের মধ্য দিয়ে সমাজের গণতন্ত্রায়নের যে সুযোগ জাতির সামনে এসেছিল তা এ দুই দল তাদের নেতাদের পারিবারিক ও দলীয় স্বার্থে বিসর্জন দিয়েছে।
দেশের সত্যিকার পরিবর্তনের জন্য বাম-গণতান্ত্রিক শক্তির উত্থানের জন্য ঐক্যবদ্ধ আন্দোলন গড়ে তোলার জন্য দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জানান তিনি।
বাসদের ৯নং জোনের আহবায়ক এডভোকেট মঈনুর রহমান মগনুর সভাপতিত্বে ও বাসদ সিলেট জেলার সমন্বয়ক আবু জাফরের পরিচালনায় সুধী সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, বাসদ কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য বজলুর রশীদ ফিরোজ, প্রবীণ রাজনীতিবিদ বীর মুক্তিয়োদ্ধা এডভোকেট মুজিবুর রহমান, অধ্যাপক ড. আবুল কাশেম, জাসদ সিলেট জেলা সভাপতি লোকমান আহমদ, গণতন্ত্রী পার্টির জেলা সভাপতি আরিফ মিয়া, সিপিবি সিলেট জেলা সহ-সভাপতি ডা: বীরেন্দ্র চন্দ দেব, গণফোরম মহানগর সভাপতি আনসার খান, সম্মিলিত নাট্য পরিষদের সাবেক সভাপতি মনির হেলাল, সম্মিলিত নাট্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক রজত গুপ্ত প্রমুখ। বিজ্ঞপ্তি