ইচ্ছেরা বেঁচে থাকে

শম্পা ঘোষ

আমি সেই ক্লান্ত নারী
সময়ে কেউ দেয়নি সাড়া
আমার এই শুকনো আবেগ
কিভাবে পড়লো ধরা।

ভগ্ন হৃদয় ব্যকুল
খসে পড়ে কান্না হয়ে
ফেলে আসা ব্যর্থ জীবন
মনকে দেয় যে ধুয়ে।

শ্বাস ফেলা দীর্ঘশ্বাসে
ডুবে যাওয়া অন্ধকারে
অনুতাপের কালো ছায়া
ধীরে ধীরে যায় যে সরে।

বয়ে চলে ইচ্ছেনদী
মনেরই গভীর তলে
ছোটো ছোটো স্বপ্নের ঢেউ
উথলে পড়লো জলে।

এলে তুমি বহুপরে
জীবনের কাছাকাছি
হাতটি বাড়িয়ে দিলে
চলবে পাশাপাশি।

ঠিক যেমন ধ্র“বতারা
প্রতীক্ষিত ক্ষুদ্র আশা
জ্বলজ্বল জ্বলতে থাকে
জেগে ওঠে ভালবাসা।
সুর তোলে ইমন রাগে
কন্ঠের নানান খাঁজে
ফাগুনের পরশ লাগে
শরীরের ভাঁজে ভাঁজে।

বিছানো সুখের চাদর
আদরে দাও জড়িয়ে
অভিমানের কুয়াশার ভার
অনুরাগে যায় হারিয়ে।

মৌন আঁধার রাতে
জোনাকির আলোর মেলা
শান্ত নদীর বুকে
ভেসে চলে প্রেমের ভেলা।

না পাওয়ার আশা যত
স্বপ্নে ডানা মেলে
স্বাদ জাগা ইচ্ছেগুলো
রয়ে গেলো মনের তলে।

মনের উপর যাদুর খেলা
কল্পনায় আসবে যাবে
জীবনের যত আশা
ইচ্ছের ভিতর লুকিয়ে রবে।