wek¦bv‡_ †Rj †_‡K †ewi‡q evw` c‡¶i Dci nvgjv, AvnZ 2

বিশ্বনাথ থেকে সংবাদদাতা :
জেল থেকে বেরিয়ে বাদি পক্ষের উপর হামলা চালিয়ে দুই ভাইকে গুরুতর আহত করেছে হারিছ আলী (২৭) নামের এক আসামি। এরা হলেন, হাবড়া (রমজানপুর) গ্রামের গৌছ উল্লা (৬০) ও নুর উল্লা (৫৫)। ঘটনার পরপরই তাদের দু’জনকে মুমুর্ষু অবস্থায় সিলেট ওসমানী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। মঙ্গলবার রাতে বিশ্বনাথের হাবড়া বাজারে হামলার এ ঘটনাটি ঘটে। এ ঘটনায় দু’পক্ষের মধ্যে চরম উত্তেজনা বিরাজ করায় হাবড়া বাজারের ব্যবসায়ীরা চরম আতঙ্কে রয়েছেন।
জানা গেছে, গত বৃহস্পতিবার ভোররাতে চরচন্ডির বাচ্চু মিয়ার বাড়ির সুপারি চুরির চেষ্টাকালে সিএনজি চুরি, ডাকাতিসহ একাধিক মামলার আসামি হারিছ আলীকে উত্তম মধ্যম দিয়ে ইউপি মেম্বার ছুরাব আলীর উপস্থিতিতে টহলরত পুলিশের কাছে সোপর্দ করা হয়। এলাকাবাসীর অভিযোগ থানায় পৌঁছার আগেই রহস্যজনক কারণে পুলিশ তাকে ছেড়ে দেয়। পরদিন শুক্রবার সন্ধ্যায় পরে এলাকাবাসীর চাপে পুলিশ তাকে (হারিছকে) ফের গ্রফতার করে। ওইদিন রাতে হারিছ আলীকে আসামি করে গৌছ উল্লাহ পক্ষের আল আমিন বাদি হয়ে থানায় একটি চুরির চেষ্টা মামলা দায়ের করেন, (মামলা নং-১)। আর হারিছ আলীকে মারধরের বিষয় এনে তার ভাই একলাছ আলী বাদি হয়ে থানায় অন্য একটি মামলা দায়ের করেন, (মামলা নং ২)। রবিবার জেল থেকে বেরিয়ে মঙ্গলবার হারিছ আলী তার সহযোগীদের নিয়ে প্রতিপক্ষের উপর হামলা চালান।
আসামি ছাড়ার বিষয় অস্বীকার করে থানার ওসি শামসুদ্দোহা পিপিএম বলেন, ফের হামলা কিংবা পাল্টা হামলার আশংকায় হাবড়া বাজারে পুলিশি টহল জোরদার করা হয়েছে।