বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রায় বিজয়ের মাসকে বরণ ॥ অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ গড়ার দৃঢ় প্রত্যয়

শুক্রবার ঘড়িতে যখন সকাল ১০টা। তখনই নগরীর বন্দরবাজার ‘সালাম সালাম হাজার সালাম/সকল শহীদ স্মরণে, /আমার হৃদয় রেখে যেতে চাই/তাদের স্মৃতির চরণে’ গানে চারদিক মুখরিত হয়ে যায়। একদিকে গান আর তার পিছনে জাতীয় পতাকা হাতে কোমলমতি স্কুলের শিক্ষার্থীদের শোভাযাত্রা। তারপরই হেঁটে হেঁটে শহীদ মিনারের দিকে যাত্রা। সেখানে গিয়ে সকলে এক কাতারে দাঁড়িয়ে শহীদ মিনারে শ্রদ্ধা জানানো। এযেন এক অন্যরকম সকাল। এভাবেই শ্রদ্ধা আর ভালবাসায় বিজয়ের মাস ডিসেম্বরকের বরন করে সিলেট। বিজয়ের মাসকে স্বাগক জানিয়ে সকাল ১০টায় জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে নগরীতে বের করা হয় শোভাযাত্রা।
শোভাযাত্রাটি জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে থেকে শুরু হয়ে নগরীর বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে সিলেট কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে গিয়ে এক সংক্ষিপ্ত সমাবেশে মিলিত হয়। সেখানে বক্তব্য দেন সিলেটের সরকারি ও বেসরকারি পর্যায়ের এবং বিভিন্ন ক্ষেত্রের বিশিষ্টজনেরা।
শহীদ মিনারে অনুষ্ঠিত সমাবেশে বক্তারা একটি অসাম্প্রদায়িক ও শোষনমুক্ত উন্নত রাষ্ট্রগঠনে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বাস্তবায়নের প্রতি গুরুত্বারোপ করেন এবং উন্নয়নের অগ্রযাত্রা অব্যাহত রাখতে স্বাধীনতাবিরোধীদের ষড়যন্ত্রের ব্যাপারে সকলকে সজাগ থাকার আহ্বান জানান।
জেলা প্রশাসক রাহাত আনোয়ারের সভাপতিত্বে ও অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক শহীদুল ইসলাম চৌধুরীর পরিচালনায় অনুষ্ঠিত সমাবেশে বক্তব্য রাখেন সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি বদর উদ্দিন আহমদ কামরান, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শফিকুর রহমান চৌধুরী, জাতিসংঘের সাবেক স্থায়ী প্রতিনিধি ড. এ কে আবদুল মোমেন, মহানগর পুলিশের উপ কমিশনার ফয়সল মাহমুদ, সিলেট সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আশফাক আহমদ, জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার সুব্রত চক্রবর্তী জুয়েল, মহানগর কমান্ডার ভবতোষ রায় বর্মণ রানা প্রমুখ। বিজ্ঞপ্তি