কুমিল্লার জয়রথ থামাল রাজশাহী

ক্রীড়াঙ্গন রিপোর্ট :
একের পর এক জয় পেয়ে উড়ছিল কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। নিজেদের প্রথম ম্যাচে হারলেও পরে টানা পাঁচটি জয় পেয়েছিল তারা। কিন্তু তাদের সেই জয়রথ থামাল রাজশাহী কিংস। বিপিএলে শনিবার দিনের প্রথম ম্যাচে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সকে ৩০ রানে হারিয়েছে রাজশাহী কিংস। আট ম্যাচ খেলে ছয় পয়েন্ট নিয়ে এখন পয়েন্ট টেবিলে ষষ্ঠ অবস্থানে আছে রাজশাহী কিংস। আর সাত ম্যাচ খেলে দশ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় অবস্থানে আছে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স।
এদিন চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত ম্যাচটিতে রাজশাহী কিংসের দেয়া ১৮৬ রানের জয়ের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে ১৯.১ ওভারে ১৫৫ রান সংগ্রহ করে অলআউট হয়ে যায় কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৬৩ রান করেন অধিনায়ক তামিম ইকবাল। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৪৫ রান করেন শোয়েব মালিক। রাজশাহী কিংসের পক্ষে মোহাম্মদ সামি ৪টি, মেহেদী হাসান মিরাজ ১টি, মোস্তাফিজুর রহমান ২টি, জেমস ফ্রাঙ্কলিন ১টি ও ডোয়াইন স্মিথ ২টি করে উইকেট নেন।
রাজশাহী কিংস ব্যাটিংয়ে নেমে ইনিংসের প্রথম ওভারেই উইকেট হারায়। ফখর জামানকে বোল্ড করেন মোহাম্মদ সামি। দ্বিতীয় ওভারে ইমরুল কায়েসকে এলবিডব্লিউয়ের ফাঁদে ফেলেন মেহেদী হাসান মিরাজ। এরপর ৮৭ রানের পার্টনারশিপ গড়েন তামিম ইকবাল ও শোয়েব মালিক।
দলীয় ৯১ রানে নিজের বলে নিজেই ক্যাচ নিয়ে শোয়েব মালিককে ফেরান ডোয়াইন স্মিথ। ইনিংসের ১৫তম ওভারে তামিম ইকবাল, অলক কাপালি ও মোহাম্মদ সাইফউদ্দিনকে সাজঘরে ফেরান মোহাম্মদ সামি। ১৬তম ওভারে জস বাটলারকে এলবিডব্লিউয়ের ফাঁদে ফেলেন জেমস ফ্রাঙ্কলিন। ১৭তম ওভারে হাসান আলীকে ফেরান মোস্তাফিজুর রহমান। ১৮তম ওভারে ডোয়াইন স্মিথের বলে জেমস ফ্রাঙ্কলিনের হাতে ক্যাচ হন রশীদ খান। ইনিংসের শেষ ওভারে মোস্তাফিজুর রহমানের বলে উইকেটরক্ষকের হাতে ধরা পড়েন মেহেদী হাসান। এর আগে টস জিতে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ২০ ওভারে সাত উইকেট হারিয়ে ১৮৫ রান সংগ্রহ করে রাজশাহী কিংস। দলের পক্ষে অধিনায়ক ড্যারেন স্যামি ১৪ বল খেলে ৪৭ রান করে অপরাজিত থাকেন ড্যারেন স্যামি। এই রান করার পথে তিনি ছয়টি ছক্কা ও একটি চার মারেন। এছাড়া ৪২ রান করেন লুকে রাইট। কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের পক্ষে আল-আমিন হোসেন ১টি, হাসান আলী ২টি ও মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন ৩টি করে উইকেট নেন।
সংক্ষিপ্ত স্কোর
ফল: ৩০ রানে জয়ী রাজশাহী কিংস।
রাজশাহী কিংস ইনিংস: ১৮৫/৭ (২০ ওভার)
(ডোয়াইন স্মিথ ১৯, মুমিনুল হক ২৩, লুকে রাইট ৪২, জাকির হাসান ২০, মুশফিকুর রহিম ৮, জেমস ফ্রাঙ্কলিন ১৪, ড্যারেন স্যামি ৪৭*, মেহেদী হাসান মিরাজ ০, মোহাম্মদ সামি ৫*; আল-আমিন হোসেন ১/৩২, মেহেদী হাসান ০/১৮, হাসান আলী ২/৩৮, মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন ৩/৫০, রশীদ খান ০/২৬, অলক কাপালি ০/১৩, শোয়েব মালিক ০/৪)।
কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স ইনিংস: ১৫৫ (১৯.১ ওভার)
(তামিম ইকবাল ৬৩, ফখর জামান ২, ইমরুল কায়েস ০, শোয়েব মালিক ৪৫, জস বাটলার ১৫, অলক কাপালি ০, মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন ০, হাসান আলী ১৬, রশীদ খান ৬, মেহেদী হাসান ৫, আল-আমিন হোসেন ১*; মোহাম্মদ সামি ৪/৯, মেহেদী হাসান মিরাজ ১/২৬, হোসেন আলী ০/৩০, মোস্তাফিজুর রহমান ২/৩২, জেমস ফ্রাঙ্কলিন ১/৩১, ডোয়াইন স্মিথ ২/২৭)।
প্লেয়ার অব দ্য ম্যাচ: ড্যারেন স্যামি (রাজশাহী কিংস)।