ঢাকার রান পাহাড়ে চাপা পড়ল রাজশাহী

ক্রীড়াঙ্গন রিপোর্ট :
২০২ রানের বিশাল লক্ষ্য। রীতিমত রাজশাহী কিংসের সামনে রানের পাহাড়। যে পাহাড় ডিঙাতে পারল না মুমিনুল-মুশফিকরা। ১৩৩ রানেই গুটিয়ে গেল পদ্মাপাড়ের দলটি। ৬৮ রানে জয় পেল সাকিব আল হাসানের ঢাকা ডায়নামাইটস। ম্যাচসেরা নির্বাচিত হয়েছেন এভিন লুইস।
রাজশাহীর পক্ষে সর্বোচ্চ ৩৬ রান করেছেন জাকির হাসান। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ১৯ রান করেছেন ড্যারেন স্যামি। বাকি ব্যাটসম্যানদের আসা-যাওয়ার মাঝে মুমিনুল ১৬, মেহেদী হাসান মিরাজ করেন ১০ রান। আর কোনো ব্যাটসম্যানই দুই অঙ্কের ঘরে নাম লেখাতে পারেনি। ঢাকার হয়ে ৪টি উইকেট শিকার করেছেন আফ্রিদি, ৩টি উইকেট নেন আবু হায়দার, ২টি উইকেট ঝুলিতে পুরেছেন সাকিব। খালি হাতে ফেরেননি মোহাম্মদ সাদ্দাম।
এর আগে ক্যারিবিয়ান তরুণ মারকুটে ওপেনার এভিন লুইস ও কাইরন পোলার্ডের বিধ্বংসী ব্যাটিংয়ে ৭ উইকেটে ২০১ রান সংগ্রহ করে ঢাকা। ৩৮ বলে ১০ চার ও এক ছক্কায় ৬৫ রান করেন লুইস। চলতি বিপিএলে টানা ভালো ব্যাটিং করে যাচ্ছেন এ ক্যারিবিয়ানরা। অন্যদিকে ২৫ বলে ৫২ রান করেন পোলার্ড।
আফ্রিদি-লুইস শুরুটা করেছিলেন ধ্বংসাত্মক মেজাজে। ৩.৫ ওভারেই ৫০ রান তুলে ফেলেন তারা। ৮ বলে ১৫ রান করে ফিরে যান আফ্রিদি। তবে লুইস তাণ্ডব চালাতে থাকেন সমানে। ২৭ বলে করেন অর্ধশত। শেষমেশ ৩৮ বলে ৬৫ রান করে আউট হন লুইস। ৬ বলে ১৩ করেন উইকেটরক্ষক জহুরুল ইসলাম।
মাঝখানে নাদিফ চৌধুরী (৯ বলে ৬) ও সাকিবের ( ১১ বলে ১১ রান) সাদামাটা ব্যাটিংয়ের পর শেষ দিকে কুমার সাঙ্গাকারা (২২ বলে ২৮ ) ও কাইরন পোলার্ডের ( ২৫ বলে ৫২ ) দারুণ ব্যাটিংয়ে ২০১ রানের বড় স্কোর গড়ে তুলে ঢাকা ডায়নামাইটস। চলতি বিপিএলে এটা দ্বিতীয় সর্বোচ্চ স্কোর। রাজশাহী কিংসের পক্ষে হোসেন আলী ৩৮ রানে ৩ উইকেট নেন।

সংক্ষিপ্ত স্কোর
ঢাকা ডায়নামাইটস: ২০ ওভারে ২০১/৭ (লুইস ৬৫, আফ্রিদি ১৫, জহুরুল ১৩, নাদিফ ৬, সাঙ্গাকারা ২৮, সাকিব ১১, পোলার্ড ৫২*, নারাইন ০; হাবিবুর ১/৪৩, মিরাজ ২/৩২, ফরহাদ ০/৪০, হোসেন ৩/৩৮, ফ্রাঙ্কলিন ০/২৯, সামিত ১/১৮)।
রাজশাহী কিংস: ১৮.২ ওভারে ১৩৩ (মুমিনুল ১৬, রনি ০, সামিত ৬, জাকির ৩৬, মুশফিক ২, ফ্রাঙ্কলিন ৯, স্যামি ১৯, মিরাজ ১০, ফরহাদ ৬, হাবিবুর ১*, হোসেন ১; আবু হায়দার ৩/১১, সাকিব ২/২২, নারাইন ০/৩২, মোসাদ্দেক ০/১৮, আফ্রিদি ৪/২৬, সাদ্দাম ১/১৯)
ফল: ঢাকা ডায়নামাইটস ৬৮ রানে জয়ী
ম্যাচসেরা: এভিন লুইস।