চিটাগংয়ের প্রথম জয়, রংপুরের প্রথম হার

স্পোর্টস ডেস্ক :
লুকে রঞ্চির দানবীয় ব্যাটিংয়ের পর তাসকিন আহমেদের দুর্দান্ত বোলিংয়ে রংপুর রাইডার্সকে ১১ রানে হারালো চিটাগং ভাইকিংস। দুই ম্যাচ খেলে চিটাগং ভাইকিংসের এটি প্রথম জয়। আর দুই ম্যাচ খেলে মাশরাফি বিন মুর্তজার দল রংপুর রাইডার্সের এটি প্রথম হার।
বুধবার বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) দিনের প্রথম ম্যাচে চিটাগং ভাইকিংসের দেয়া ১৬৭ রানের জয়ের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ২০ ওভারে আট উইকেট হারিয়ে ১৫৫ রান সংগ্রহ করে রংপুর রাইডার্স।
দলের পক্ষে রবি বোপারা ৩৮, শাহরিয়ার নাফিস ২৬ ও মোহাম্মদ মিথুন ২৩ রান সংগ্রহ করেন। চিটাগং ভাইকিংসের পক্ষে তাসকিন আহমেদ ৩টি, সানজামুল ইসলাম ১টি, শুভাশিস রায় ১টি ও লুইস রিসি ২টি করে উইকেট নেন।
রংপুর রাইডার্স ব্যাট করতে নেমে শুরুতে উইকেট হারিয়ে চাপে পড়লেও পরে রবি বোপারা ও শাহরিয়ার নাফিস দলকে জয়ের স্বপ্ন দেখাচ্ছিলেন। কিন্তু ইনিংসের ১৩তম ওভারে তাসকিন আহমেদ পরপর তিন বলে তিন উইকেট নিয়ে রংপুরের সেই স্বপ্ন শেষ করে দেন।
ওই ওভারের চতুর্থ বলে শাহরিয়ার নাফিসকে বোল্ড করেন তাসকিন আহমেদ। পঞ্চম বলে মিসবাহ-উল-হকের হাতে ধরা পড়েন সামিউল্লাহ শেনওয়ারি। ওভারের শেষ বলে তাসকিনের বুদ্ধিমত্তায় রান আউট হন রবি বোপারা।
ইনিংসের ১৫তম ওভারে আবার আঘাত হানেন তাসকিন আহমেদ। ছক্কা হাঁকাতে গিয়ে সীমানার কাছে তানভীর হায়দারের হাতে ধরা পড়েন থিসারা পেরেরা।
এর আগে চিটাগং ভাইকিংস ব্যাটিংয়ে নেমে নির্ধারিত ২০ ওভারে চার উইকেট হারিয়ে ১৬৬ রান সংগ্রহ করে। দলের পক্ষে ওপেনার লুকে রঞ্চি ৩৫ বল খেলে ৭৮ রান করেন। এই রান করার পথে তিনি সাতটি চার ও সাতটি ছক্কা মারেন। রংপুর রাইডার্সের পক্ষে রবি বোপারা ২টি, থিসারা পেরেরা ১টি ও মাশরাফি বিন মুর্তজা ১টি করে উইকেট নেন।
সংক্ষিপ্ত স্কোর
ফল: ১১ রানে জয়ী চিটাগং ভাইকিংস।
চিটাগং ভাইকিংস ইনিংস: ১৬৬/৪ (২০ ওভারে)
(লুক রঞ্চি ৭৮, সৌম্য সরকার ৭, দিলশান মুনাবিরা ২০, লুইস রিসি ১০, মিসবাহ উল হক ৩১*, এনামুল হক বিজয় ১৭*; রবি বোপারা ২/১৪, মাশরাফি বিন মুর্তজা ১/২৮, থিসারা পেরেরা ১/১৬)।
রংপুর রাইডার্স ইনিংস: ১৫৫/৮ (২০ ওভার)
(জনসন চার্লস ১, জিয়াউর রহমান ১১, মোহাম্মদ মিথুন ২৩, রবি বোপারা ৩৮, শাহরিয়ার নাফিস ২৬, সামিউল্লাহ শেনওয়ারি ০, থিসারা পেরেরা ১১, মাশরাফি বিন মুর্তজা ১৩, সোহাগ গাজী ১১*, লাসিথ মালিঙ্গা ১৪*; সানজামুল ইসলাম ১/২১, শুভাশিস রায় ১/৩৫, তাসকিন আহমেদ ৩/৩১, লুইস রিসি ২/২৬, সিকান্দার রাজা ০/১৬, তানভীর হায়দার ০/২৪)।
প্লেয়ার অব দ্য ম্যাচ: তাসকিন আহমেদ (চিটাগং ভাইকিংস)।