বৈষম্য না করে কাজ করছি – এহিয়া এমপি

ওসমানীনগর থেকে সংবাদদাতা :
বন ও পরিবাশে মন্ত্রণালয়ের স্থায়ী কমিটির সদস্য ও সংসদ সদস্য ইয়াহ্ইয়া চৌধুরী এহিয়া বলেছেন, ওসমানীনগর-বালাগঞ্জ ও বিশ্বনাথের মাটি ও মানুষের ভাগ্যোন্নয়নের অব্যাহত চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি। যা আগামীতে অব্যাহত থাকবে। কোন ধরনের বৈষম্য না করে এ তিন উপজেলার উন্নয়ন ও জনকল্যাণধর্মী তৎপরতায় নিরলসভাবে কাজ করছি। উন্নয়ন প্রকল্প আর সরকারী সুযোগ-সুবিধার সুষম বন্টনের মাধ্যমে জনহিতকর কাজের বাস্তবায়ন সম্পন্ন করা হচ্ছে। বালাগঞ্জ-ওসমানীনগর ও বিশ্বনাথের গ্রামীণ জনপদের সংস্কার ও পুন:মেরামতের জন্য প্রধানমন্ত্রী ও সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ে নিজ গিয়ে এলাকার বঞ্চিতদের কথা উপস্থাপন করে উন্নয়ন প্রকল্পের বরাদ্দ নিয়ে এসেছি। এর ধারাবাহিকতায় গ্রামীণ রাস্তাঘাটের ব্যাপক উন্নয়ণ সাধিত হচ্ছে। জাতীয় পার্টি গ্রামীণ জনপদের উন্নয়নে বিশ্বাসী। ফলে পল্লী বন্ধু হুসাইন মুহাম্মদ এরশাদের সেই সোনালী নয় বছরের শাসনামলেই একমাত্র বাংলাদেশের ৬৮ হাজার গ্রামে ঐতিহাসিক উন্নয়ন কর্মকান্ড বাস্তবায়িত হয়েছে। যা বিগত আর কোন সরকারের আমলে হয়নি। গতকাল ওসমানীনগরের উমপুর ইউনিয়ের ইসলামপুর এলাকায় স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের আওতায় সিকন্দরপুর-মোল্লাপাড়া রোড-শাহজাহানপুর-বাদেখুজগীপুর মহিলা মাদ্রাসা-মুন্সিবাড়ি রাস্তার উন্নয়ন কাজের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথাগুলো বলেন তিনি। এসময় অনান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, জাপা নেতা এ কেএম দুলাল, হাজি আব্দুর নুর, স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের ওসমানীনগর উপজেলা সহকারী প্রকৌশলী আব্দুর রহিম, জাপা নেতা খলকু মিয়া, উপজেলা যুবসংহতির আহবায়ক জাবের আহমদ চৌধুরী, জাপা নেতা আশক আলী,ইফতেখার চৌধুরী, সাজ্জাদ মিয়া, আরন আলী, সোহেল রানা, আনফর আলী, শাহজাদ মিয়া, আব্দুল কাইয়ুম রাজ, টিটু মিয়া, সোহেল মিয়া, বাহার মিয়া, এনাম মিয়া, শাহান মিয়া, আরশ আলী, আওলাদ মিয়া, আঙ্গুর আলী, শাহজান মিয়া, দানিছ মিয়া, মুক্তিযোদ্ধা জিলু মিয়া, আব্দুর নুর, হারুন মিয়া, লিলু মিয়া, সুজন মিয়া, মতিউর রহমান, জাহেদ মিয়া, সালাউদ্দিন, টিপু মিয়া ময়নূল ইসলাম প্রমুখ।