নানা আয়োজনে সিলেটে জাতীয় যুব দিবস পালিত

যুবদের জাগরণ-বাংলাদেশের উন্নয়ন এ প্রতিপাদ্য নিয়ে গতকাল সিলেটে বিপুল উৎসাহ উদ্দীপনায় পালিত হয়েছে জাতীয় যুব দিবস-২০১৭। এ উপলক্ষে যুব উন্নয়ন অধিদপ্তর ও জেলা প্রশাসন‘র যৌথ উদ্যোগে নগরীতে বর্ণাঢ্য র‌্যালী, আলোচনা সভা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, বৃক্ষ রোপণ, সুরমা নদীতে মৎস্য অবমুক্তকরণ, ক্রীড়া প্রতিযোগিতা ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠিত হয়। র‌্যালী সিলেট জেলা প্রশাসক‘র প্রাঙ্গণ থেকে শুরু হওয়া জেলা পরিষদের সম্মুখে গিয়ে শেষ হয়। পরে জেলা পরিষদ অডিটোরিয়ামে আয়োজিত আলোচনা সভায় অনুষ্ঠিত হয়।
সিলেট জেলা প্রশাসক রাহাত আনোয়ারের সভাপতিত্বে সদর উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা মো: আব্দুল মান্নান এর পরিচালনায় আলোচনা সভায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন যুব উন্নয়ন অধিদপ্তর‘র উপর পরিচালক মো: আলাউদ্দিন, প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন সিলেট বিভাগীয় কমিশনার ড. মোছাম্মৎ নাজমানারা খানুম, বিশেষ অতিথি ছিলেন, এডিশনাল ডিআইজি সিলেট রেঞ্জ সিলেট মো: নজরুল ইসলাম,বীর মুক্তিযোদ্ধা এম খালিক, প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা জেলা পরিষদ সিলেট আব্দুল আহাদ, উপজেলা নির্বাহী অফিসার সিলেট সদর সিরাজম মনিরা, সিলেট জেলা পরিষাদ‘র মহিলা কাউন্সিলর এ জেড রওশন জেবিন রুবা, সুসমা সুলতানা রুহি, সাজনা সুলতানা হক চৌধুরী, জাতীয় পুস্কারপ্রাপ্ত এম এ নাসির সুজা, নরুনাহার বেবী, জাতীয় প্রশিক্ষিত যুব সংসদ (প্রযুস) সম্পাদক আফিকুর রহমান আফিক, সোনালী স্বপন বাংলাদেশ সিলেটের সাংগঠনিক সম্পাদক শেখ তোফায়েল আহমদ সেপুল, ধুব্রতারা সহ সভাপতি বিভাগীয় কমিটি ড. নাজরা চৌধুরী, আইন সহায়াতা কেন্দ যুব ফাউন্ডেশন সিলেট‘র সভাপতি সাদিকুর রহমান।
অন্যান্যদের মাঝে উপস্থিত ছিলেন, যুব উন্নয়ন অধিদপ্তর সহকারী পরিচালনক মিজানুর রহমান, কর্মসংস্থান ব্যাংক‘র সহকারী মহাব্যবস্থাপক ও আঞ্চলিক ব্যবস্থাপক মনোজ রায়, ইনসাফ ভিলেজ ডেভলপমেন্ট ফর ইয়োথ সোসাইটির সভাপতি মো: নজরুল ইসলাম, প্রযুস‘র সভাপতি জামাল খান, সহ সভাপতি আব্দুল আহাদ শাহীন, আনোয়ার হোসেন রাজু, আব্দুল জলিল সামায়ুন,শারমিন কবির, মোক্তার হোসেন প্রমুখ। অনুষ্ঠানে ৭জন আত্মকর্মীদের মাঝে বিভিন্ন প্রকল্পে ৪ লক্ষ ৭৫ হাজার টাকা চেক বিতরণ করা হয়।
আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য বলেন, সিলেট বিভাগীয় কমিশনার ড. মোছাম্মৎ নাজমানারা খানম বলেন, যুবরাই দেশের মূল চালিকা শক্তি। তাই যুবদেরকে আত্মনির্ভরশীল হয়ে গড়ে উঠতে হবে। ইচ্ছা শক্তি ও মনোবলকে কাজে লাগিয়ে এগিয়ে গেলে দ্রুত সফলতা অর্জন করা সম্ভব।
সিলেট কল্যাণ সংস্থা : সিলেট কল্যাণ সংস্থার আয়োজনে ও সিলেট বিভাগ যুব কল্যাণ সংস্থা’র সহযোগিতায় বুধবার যুবদের জাগরণ, বাংলাদেশের উন্নয়ন এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে জাতীয় যুব দিবস ২০১৭ উদ্যাপন করা হয়। জাতীয় যুব দিবস ২০১৭ উপলক্ষে ১ম পর্বে সকাল ৮টায় কীনব্রীজ (উত্তর) সংলগ্ন আলী আমজদের ঘড়ির পার্শ্বে যুব গণজমায়েত, সকাল ১০টায় দিনব্যাপী কর্মসূচী উদ্বোধন, বেলা সাড়ে ১০টায় কীনব্রীজের উত্তর পার্শ্ব থেকে শুরু হয়ে কেন্দ্রীয় মুসলিম সাহিত্য সংসদ পর্যন্ত বর্ণাঢ্য যুব শোভাযাত্রার আয়োজন করা হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সিলেট সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী।
পরে বেলা সাড়ে ১১টায় কেন্দ্রীয় মুসলিম সাহিত্য সংসদ’র শহীদ সোলেমান হলে ২য় পর্বে আলোচনা সভা এবং যুব সংগঠক ও আত্মকর্মী সৃষ্টিতে বিভিন্ন ক্ষেত্রে কৃতিত্বের অধিকারী সিলেট বিভাগের গুণীজন, যুব আত্মকর্মী, যুব সংগঠক ও যুব সংগঠনদের মধ্যে সম্মাননা ও শুভেচ্ছা স্মারক প্রদান করা হয়। ২য় পর্বের আয়োজনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আসাদ উদ্দিন আহমদ। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোঃ নাসির উদ্দিন খান এডভোকেট।
১ম পর্বের দিনব্যাপী কর্মসূচী উদ্বোধন শেষে সিলেট সিটি কর্পোরেশন’র মেয়র আরিফুল হক চৌধুরীর নেতৃত্বে বর্ণাঢ্য যুব শোভাযাত্রা সিলেট নগরীর প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে কেন্দ্রীয় মুসলিম সাহিত্য সংসদে গিয়ে সমাপ্ত হয়। কর্মসূচী উদ্বোধন শেষে মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী বলেন, জাতীয় যুব দিবস’র যথার্থ মর্মার্থ যুবদের মধ্যে পৌঁছে দিতে হবে। যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের অধীনে যুব উন্নয়ন অধিদপ্তরের মাধ্যমে গ্রহণকৃত তাদের নির্দিষ্ট প্রশিক্ষণ গ্রহণ করে যুবদেরকে হতে হবে স্বাবলম্বী। যুবরা প্রশিক্ষণ গ্রহণের মাধ্যমে আত্মনির্ভরশীল হলে তাদের মাধ্যমে দেশ হবে স্বয়ংসম্পূর্ণ। তাই সর্বস্তরের যুবরা সরকারী ও বেসরকারী প্রশিক্ষণ কেন্দ্র থেকে আত্মনির্ভরশীল হওয়ার প্রশিক্ষণ গ্রহণ করে নিজেকে একজন দক্ষ ব্যক্তিত্বশীল ব্যক্তি হিসেবে সমাজে প্রতিষ্ঠিত করা প্রয়োজন। তিনি আরো বলেন, যুবদের কার্যক্রমকে স্বনির্ভর ও গতিশীল করতে সব ধরণের অনৈতিকতা থেকে যুব সমাজকে বেরিয়ে আসতে হবে। তাতেই দেশ হবে সমৃদ্ধ ও স্বয়ংসম্পূর্ণ।
প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি মোহাম্মদ এহছানুল হক তাহেরের সভাপতিত্বে জাতীয় যুব দিবস ২০১১ এ বিভাগীয় সফল যুব সংগঠক পদকপ্রাপ্ত সংস্থার প্রতিষ্ঠাতা সাধারণ সম্পাদক মোঃ জিয়াউর রহমান জিয়ার পরিচালনায় যুব গণজমায়েতে সংস্থা সহ বিভিন্ন সংগঠনের নেতৃবৃন্দদের মধ্য থেকে বক্তব্য রাখেন সিলেট বিভাগের যুব সংগঠক ও সিলেট কল্যাণ সংস্থা’র সংস্থা পরিচালনা কমিটির আহ্বায়ক এ কে কামাল হোসেন, সংস্থা পরিচালনা কমিটির সদস্য গাজী আলমগীর হোসাইন, হুমায়ূন রশীদ চৌধুরী, সিলেট ব্যবসায়ী স্বার্থ সংরক্ষণ পরিষদ’র আহ্বায়ক ও শুকরিয়া আধুনিক বিপনী কেন্দ্র ব্যবসায়ী সমিতি’র সাধারণ সম্পাদক কিবরিয়া হোসেন নিঝুম, বাংলাদেশ হিউম্যান রাইট্স ফাউন্ডেশন’র কেন্দ্রীয় কমিটির লাইফ মেম্বার সৈয়দ সাইদুল ইসলাম দুলাল, শুকরিয়া আধুনিক বিপনী কেন্দ্র ব্যবসায়ী সমিতি’র সহ সাধারণ সম্পাদক মোঃ রূপন খাঁন, অর্থ বিষয়ক সম্পাদক এ. এইচ আজাদ, মৃত্তিকা ছাত্র ফোরাম’র সভাপতি ফখরুল আল হাদী, সিটি সুপার মার্কেট’র সাধারণ সম্পাদক মোঃ হাবিবুর রহমান, ওয়েস্ট ওয়ার্ল্ড ব্যবসায়ী সমিতি’র সদস্য এম কামাল আহমদ, নিরাপদ সড়ক চাই সিলেট জেলা শাখার সভাপতি এম. বাবর লস্কর, যুব উন্নয়ন প্রশিক্ষণ কেন্দ্র’র বিভাগীয় পরিচালক মোঃ মখলিছুর রহমান, আইন সহায়তা কেন্দ্র ফাউন্ডেশন’র সুনামগঞ্জ জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্জ মুখতার আহমদ তালুকদার, পাঠক সংগঠন শৈলী’র সাধারণ সম্পাদক মোঃ আব্দুন নুর, দরগাহ বাজার ব্যবসায়ী সমিতি’র সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ রাজন আহমদ, সিলেট ব্যবসায়ী স্বার্থ সংরক্ষণ পরিষদ’র যুগ্ম আহ্বায়ক চন্দন দে। এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন সিলেট জেলা ও মহানগরের বিভিন্ন স্তরের ব্যবসায়ী ও যুব সংগঠকদের মধ্য থেকে সংস্থার প্রতিষ্ঠাতা সদস্য মোঃ মিজানুর রহমান মিজান, শিক্ষক মোহাম্মদ ইকবাল হোসেইন, মোহাম্মদ সাজ্জাদ খান, মোঃ লুৎফুর রহমান, বিজিত চন্দ, মেহেদী হাসান, ফটোগ্রাফার মোঃ সুয়েজ হোসেন, যুব নেতা মোঃ মিজানুর রহমান রুমন, সুনামগঞ্জের যুব নেতা হুমায়ূন রশিদ চৌধুরী, মোঃ মতিউর রহমান হাসান, মোঃ আনোয়ার হোসেন, সৈয়দ আব্দুর রব হুসাইন শিহাব, মোঃ নাজমুল ইসলাম মিটু, মোঃ ফয়জুন নূর, সৈয়দ ফাহিম হোসেন, ইসমত ইবনে ইসহাক, মোছাব্বি আহমদ মিলন, মোঃ সানোয়ার হোসেন, যুব নেতা মোঃ আশিক আহমদ, মোঃ আব্দুল মুকিত, আরাফাত হোসেন সোহাগ, জাছাদ আহমেদ, মাহফুল আল গালিব, যুব নেতা মোঃ আব্দুশ শহিদ, অলি রাহমান, আল আমিন টুটুল, নাজমুল হোসেন ইমন, মোঃ নাজমুল হুসাইন, মোঃ মকবুল চৌধুরী, মোঃ খালিক নুর, মোঃ ইকবাল হোসেন, ইয়ামন আহমদ ইমন, শাহ সিদ্দিকী, ফিরোজ আহমদ, শাহ মোঃ লোকমান আলী, মোঃ সাবেল আহমদ, মোঃ কামিল হোসেন, সুলাইমান আহমদ সুহেল, এম. শামীম আহমেদ, কৃতিশ তালুকদার, মোঃ সুমন আহমদ সুমিম, কম্পিউটার ইঞ্জিনিয়ার আব্দুল আহাদ ও মাওলানা আব্দুর রহমান সাজু। বিজ্ঞপ্তি