পুরাতন সংবাদ: July 10th, 2018

মৌলভীবাজারে পিবিআই পুলিশ এর কার্যক্রম ॥ চাঞ্চল্যকর ১০টি মামলার রহস্য উদঘাটন

মৌলভীবাজার থেকে সংবাদদাতা :
মৌলভীবাজারে “পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন” (পিবিআই) ২০১৪ সালের ১৭ আগষ্ট থেকে তাদের কার্যক্রম শুরু করে। তদন্ত শুরু থেকে খুন, চাঞ্চল্যকর মামলা, কু-বিহীন মামলার তদন্তকার্য নিষ্পত্তি করে। বেশ কয়েকটি ঘটনার তদন্তে গুরুত্বপূর্ণ কয়েকটি মামলার তথ্য উদ্ঘাটন বিস্তারিত

জামায়াতকে এখনো বাগে আনতে পারেনি বিএনপি, পথের কাঁটা সেলিমও

কাজিরবাজার ডেস্ক :
জোটসঙ্গী জামায়াতকে বাগে আনতে পারেনি বিএনপি। ২০১৩ সালে জয়ী বিএনপির প্রার্থী আরিফুল হক চৌধুরীকে চ্যালেঞ্জ করে প্রার্থী হিসেবে রয়ে গেছেন জামায়াতের এহসানুল মাহবুব জুবায়ের। ফলে আওয়ামী লীগের বদর উদ্দিন আহমেদ কামরানের পাশাপাশি এই নির্বাচনে দৃষ্টি বিস্তারিত

হবিগঞ্জে সড়ক দুর্ঘটনায় শিশু নিহত

হবিগঞ্জ থেকে সংবাদদাতা :
হবিগঞ্জে সড়ক দুর্ঘটনায় এক শিশু নিহত হয়েছে। সোমবার দুপুরে সদর উপজেলার রাজিউড়া ইউনিয়নের গদাইনগর গ্রামে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত শিশু ওই গ্রামের কদর আলীর মেয়ে জেসমিন আক্তার (৪)।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, জেসমিন সোমবার দুপুরে মায়ের সাথে বাড়ির সামনের রাস্তায় হাটছিল। এ সময় সাধুরবাজার থেকে পাইকপাড়াগামী একটি ব্যাটারি চালিত ইজিবাইক তাকে চাপা দেয়। এতে সে গুরুতর আহত হয়। তাৎক্ষণিক পরিবারের লোকজন তাকে উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। তার মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে হাসপাতালের মেডিকেল অফিসার ডা. রাজিব চৌধুরী জানান, সড়ক দুর্ঘটনায় তার মৃত্যু হয়েছে। হাসপাতালে পৌছার আগেই সে মারা যায়।

হবিগঞ্জে এক বছরে ২৯৯ প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা, ১১ লাখ ২৫ হাজার টাকা জরিমানা আদায়

হবিগঞ্জ থেকে সংবাদদাতা :
হবিগঞ্জে গত এক বছরে ২৯৯টি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা করা হয়েছে। তাদের নিকট থেকে মোট ১১ লাখ ২৫ হাজার ২শ’ টাকা জরিমানা আদায় করা হয়। ৮৪টি অভিযান চালিয়ে এসব জরিমানা আদায় করে জেলা ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর। এ সময়ের বিস্তারিত

১৪ অতিরিক্ত সচিবের দফতর বদল

কাজিরবাজার ডেস্ক :
প্রশাসনে ১৪ জন অতিরিক্ত সচিবের দফতর বদল করা হয়েছে। সোমবার জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় থেকে এই রদবদল করে আদেশ জারি করা হয়েছে।
আদেশ অনুযায়ী জাতীয় গৃহায়ণ কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান বিস্তারিত

মাধবপুরে ভবন থেকে মাথায় পাইপ পড়ে প্রমিক নিহত

হবিগঞ্জ থেকে সংবাদদাতা :
হবিগঞ্জের মাধবপুর উপজেলায় যমুনা ইন্ডাস্টিয়াল পার্কের বহুতল ভবনের ৩০ ফুট উপর থেকে মাথায় পাইপ পড়ে তপু ঘোষ (১৮) নামে এক শ্রমিক নিহত হয়েছেন।
সোমবার (৯ জুলাই) সকাল সাড়ে ১০টার দিকে বিস্তারিত

আরিফুল হকের বাসায় সংবাদ সম্মেলনে আমির খসরু ॥ বিএনপির কর্মীদের সিলেট ছেড়ে চলে যাওয়ার হুমকি দেওয়া হচ্ছে

স্টাফ রিপোর্টার :
বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ও সিলেট সিটি করপোরেশন নির্বাচনে দলের সমন্বয়কারী আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী অভিযোগ করেছেন, ‘সিলেটে আওয়ামী লীগ প্রার্থী একাধিকবার নির্বাচনি আচরণবিধি লঙ্ঘন করলেও নির্বাচন কমিশনের কোনও ধরনের হস্তক্ষেপ নেই। বিস্তারিত

হবিগঞ্জে দেশীয় অস্ত্রসহ তিন ডাকাত আটক

হবিগঞ্জ থেকে সংবাদদাতা :
হবিগঞ্জের মাধবপুরে প্রবাসির বাড়িতে ডাকাতির প্রস্তুতিকালে দেশীয় অস্ত্রসহ তিন ডাকাতকে আটক করেছে পুলিশ। সোমবার ভোরে উপজেলার ধর্মঘর এলাকা থেকে তাদের আটক করা হয়।
আটকৃকতরা হলো, মাধবপুর উপজেলার তুলসীপুর গ্রামের বিস্তারিত

পাঠ্যবই মুদ্রণে সিন্ডিকেট রোধ

বছরের প্রথম দিনেই শিক্ষার্থীদের হাতে বই তুলে দিয়ে দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে সরকার। একই দিনে শুরু হচ্ছে শিক্ষাপঞ্জি। পরীক্ষা থেকে শুরু করে পুরো বছরের কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে সুনির্দিষ্ট নিয়ম মেনে। চলতি বছরকে ধরে নেওয়া হচ্ছে নির্বাচনের বছর হিসেবে। এ জন্য অন্য অনেক কাজের মধ্যে শিক্ষার্থীদের জন্য বই ছাপার কাজটিও আগাম করে রাখার চেষ্টা চলছে। সরকারের এই সদিচ্ছাকেই পুঁজি করেছেন ব্যবসায়ীরা। ২০১৯ শিক্ষাবর্ষের প্রাথমিক ও প্রাক-প্রাথমিক স্তরের শিক্ষার্থীদের জন্য প্রায় সাড়ে ১১ কোটি পাঠ্য বই মুদ্রিত হচ্ছে। এবারের মুদ্রণকাজে মুদ্রাকর ও প্রকাশকরা প্রথমবার যে দাম দেয়, তা প্রাক্কলিত দরের চেয়ে ১১১ কোটি টাকা বেশি। এনসিটিবি কর্তৃপক্ষ পুনঃ দরপত্র আহ্বান করে। নতুন করে মুদ্রাকর ও প্রকাশকরা যে দর দেয় তাতে দেখা যাচ্ছে এই দরে বই ছাপলে প্রাক্কলিত দরের চেয়ে সরকারের ব্যয় হবে কোটি টাকা বেশি। দ্বিতীয়বার দরপত্র আহ্বানের পর দর বেশি দেওয়ায়ই বুঝতে পারা যাচ্ছে, মুদ্রাকর ও প্রকাশকদের একটি সিন্ডিকেট গড়ে উঠেছে, যারা সরকারের সদিচ্ছাকে কেন্দ্র করে একটি বড় অঙ্কের ব্যবসা করতে চায়।
বই মুদ্রণের ব্যবসাকে কেন্দ্র করে গঠিত হওয়া এই সিন্ডিকেট এর আগেও এজাতীয় কাজ করেছে। গত বছর এই কাজই করা হয়েছিল ১৮ শতাংশ কম দামে। এবার প্রথম দরপত্র আহ্বান করা হলে প্রায় সাড়ে ৪০০ প্রতিষ্ঠান দরপত্রে অংশ নিয়েছিল। কিন্তু পুনঃ দরপত্র আহ্বান করা হলে অংশ নেয় মাত্র ২৫০টি প্রতিষ্ঠান। দ্বিতীয়বার দরপত্রে অংশ নেওয়া অধিকাংশ প্রতিষ্ঠানের ব্যাংক গ্যারান্টিও এক ব্যাংকের একই শাখা থেকে নেওয়া হয়েছে। অর্থাৎ সিন্ডিকেট একত্র হয়ে কাজটি করেছে। এখানে এনসিটিবিও অসহায় হয়ে পড়েছে।
কিন্তু বই ছাপার কাজে সরকারের এত বড় লোকসান হতে দেওয়া যায় না। যদিও এনসিটিবি বলছে, এখনো দরপত্র মূল্যায়ন শেষ হয়নি। মূল্যায়নের কাজটি খুুব নিষ্ঠার সঙ্গে করতে হবে। প্রয়োজনে সব দরপত্র বাতিল করে দেওয়া যেতে পারে। সে ক্ষেত্রে প্রাক্কলিত দরপত্রে কাজ করতে আগ্রহী যোগ্য মুদ্রাকরদের আহ্বান করা যেতে পারে। তাতে মানসম্পন্ন বই শিক্ষার্থীদের হাতে যাবে। কোনো সিন্ডিকেটের কাছে এনসিটিবি সে ক্ষেত্রে জিম্মি হয়ে থাকবে না। আমরা আশা করব, বই মুদ্রণের কাজে সঠিক সিদ্ধান্ত নেবে এনসিটিবি।