পুরাতন সংবাদ: January 8th, 2018

চীনে দুই জাহাজের সংঘর্ষ, দুই বাংলাদেশিসহ নিখোঁজ ৩২

কাজিরবাজার ডেস্ক :
চীনের পূর্ব উপকূলে একটি কার্গো জাহাজের সঙ্গে একটি তেলের ট্যাংকারের সংঘর্ষে ৩২ জন নাবিক নিখোঁজ রয়েছেন। নিখোঁজ নাবিকদের মধ্যে দুজন বাংলাদেশি এবং ৩০ জন ইরানি নাগরিক রয়েছেন বলে জানা গেছে।
পানামার নিবন্ধিত সানচি নামে তেলের ট্যাংকারটি বিস্তারিত

তিন ব্যাংকের ১২ জানুয়ারির পরীক্ষা স্থগিত

কাজিরবাজার ডেস্ক :
রাষ্ট্রায়ত্ব তিন ব্যাংক সোনালী, রূপালী ও জনতা ব্যাংকের সমন্বিত নিয়োগ পরীক্ষা স্থগিত করেছে হাইকোর্ট।
বিচারপতি মইনুল ইসলাম চৌধুরী ও বিচারপতি জেবিএম হাসানের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ রবিবার এই স্থগিতাদেশ দেন। একইসঙ্গে রুলও দিয়েছে আদালত। বিস্তারিত

কমলগঞ্জে পুলিশের উপর হামলা চালিয়ে আসামী ছিনতাই, এসআইসহ ৪ পুলিশ সদস্য আহত

কমলগঞ্জ থেকে সংবাদদাতা :
মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলার সদর ইউনিয়নের বাঘমারা গ্রামে ওয়ারেন্টভুক্ত এক আসামীকে ধরার পর রাতে আসামীর স্বজনরা পুলিশের উপর হামলা চালিয়ে আসামী ছিনিয়ে নেয়ার অভিযোগ উঠেছে। আসামী পক্ষের হামলায় এক এসআই, দুই এএসআই ও এক পুলিশ বিস্তারিত

সুনামগঞ্জের হাওরাঞ্চলে শৈত্য প্রবাহের প্রকোপ বাড়ছে

সুনামগঞ্জ থেকে সংবাদদাতা :
সুনামগঞ্জের হাওরাঞ্চলে পৌষ মাসের প্রথমদিকে শীতের হালকা পরশ পওয়া গেলেও গত কয়েক দিন ধরে শৈত্য প্রবাহ বেড়েই চলছে। সূর্যের দেখা কিছুটা মিললেও কুয়াশার চাদরে ডাকা থাকে সারা দিন।
হাওরাঞ্চলে ঠান্ডার কারনে বোরো জমিতে চারা রোপন বিস্তারিত

বিয়ানীবাজারে বিদ্যুৎহীন দেড় হাজার পরিবার

বিয়ানীবাজার থেকে সংবাদদাতা :
বিয়ানীবাজার উপজেলার প্রায় দেড় হাজার পরিবার এখনো বিদ্যুৎবঞ্চিত। এ জনগোষ্ঠী শুধু বিদ্যুৎ বঞ্চিত নয়, প্রতারণারও শিকার। বিদ্যুৎ সংযোগ দেয়ার নামে প্রবাসী অধ্যুষিত এ এলাকা থেকে হাতিয়ে নেয়া হয়েছে লাখ লাখ টাকা। তবে বিদ্যুৎ বিভাগের প্রচেষ্টায় বঞ্চিত এসব বিস্তারিত

বিশ্বনাথে দরিদ্রদের মধ্যে শীতবস্ত্র ও ঢেউটিন বিতরণ

বিশ্বনাথ থেকে সংবাদদাতা :
প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিল থেকে বিশ্বনাথ উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে হতদরিদ্র পরিবারের মধ্যে শীতবস্ত্র ও ঢেউটিন বিতরণ করা হয়েছে। উপজেলার ৮ ইউনিয়নের এক হাজার হতদরিদ্রের প্রত্যেককে একটি করে কম্বল এবং ৪৪ জনকে একবান করে ঢেউটিন বিতরণ করার কথা রয়েছে। বিস্তারিত

তাহিরপুরে ১১ দিন ধরে খোলা বাজারে চাল বিক্রি বন্ধ

তাহিরপুর থেকে সংবাদদাতা :
সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলায় ১১ দিন ধরে বন্ধ রয়েছে খোলা বাজারে (ওএমএস) এর চাল বিক্রি। সরকারি নির্দেশনা থাকা সত্ত্বেও গুদামে মজুদ না থাকায় চাল বিক্রি বন্ধ রয়েছে বলে জানিয়েছে উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক কার্যালয়। বিস্তারিত

সড়ক দুর্ঘটনা রোধে কার্যকর আইন চাই

দেশে সড়ক দুর্ঘটনার হার উদ্বেগজনক হারে বেড়েছে। গড়ে প্রতিদিন ১৫ থেকে ২০ জন প্রাণ হারায় সড়ক দুর্ঘটনায়। লাইসেন্সহীন অদক্ষ চালকের হাতে, এমনকি অপ্রাপ্তবয়স্ক চালকের হাতে গাড়ির চাবি তুলে দেওয়া হয়। বহু ফিটনেসবিহীন গাড়ি চলাচল করে রাস্তায়, যেগুলোর নিয়ন্ত্রণে সমস্যা রয়েছে। বেপরোয়া গতি, প্রতিযোগিতা করে গাড়ি চালানো, গাড়ি চালাতে চালাতে মোবাইল ফোনে কথা বলাসহ বহু অনিয়ম ঘটে রাস্তায়। বাংলাদেশে সড়ক দুর্ঘটনা কমাতে মহাসড়কে ডিভাইডার তৈরি করা হয়েছে। শ্লথগতির যানবাহন নিষিদ্ধ করা হয়েছে। কিন্তু দুর্ঘটনা প্রতিরোধ করা সম্ভব হয়নি। অনেক দুর্ঘটনার খবর সংবাদমাধ্যমে আসে না। ব্যবস্থা নেওয়া দূরের কথা, দুর্ঘটনার সব খবর নথিভুক্তও হয় না। এক পরিসংখ্যানে দেখা গেছে, প্রায় ৪০ শতাংশ চালকের বৈধ ড্রাইভিং লাইসেন্স নেই। আবার বৈধ লাইসেন্স নিয়ে গাড়ি চালাচ্ছে এমন চালকদের ৩১ শতাংশ কোনো অনুমোদিত ইনস্টিটিউট থেকে প্রশিক্ষণ গ্রহণ করেননি। ফলে চালকদের বেশির ভাগই ট্রাফিক আইন ভালো জানেন না। সড়ক দুর্ঘটনার এটাও একটা কারণ। দেশের সড়ক-মহাসড়কে যেসব যানবাহন চলছে, তার অধিকাংশই চলাচলের অযোগ্য, ফিটনেসবিহীন। অন্যদিকে আমাদের দেশে চালকদের বড় সীমাবদ্ধতা হচ্ছে, প্রয়োজনীয় শিক্ষাগত যোগ্যতা না থাকায় তাঁদের অনেকেই আধুনিক সড়ক নির্দেশনা বুঝতে অক্ষম। গাড়িচালকদের শিক্ষাগত যোগ্যতা অন্তত এসএসসি নির্ধারণ করার আদেশ দেওয়া হয়েছিল উচ্চ আদালত থেকে। শুক্রবার রাজধানীতে নৌ, সড়ক ও রেলপথ রক্ষা জাতীয় কমিটির আলোচনাসভায় এসব বিষয়ই নতুন করে উঠে এসেছে। সড়ক দুর্ঘটনা প্রতিরোধে ১৪ দফা সুপারিশও উত্থাপন করা হয়েছে এই আলোচনাসভায়।
আমরা কোনোমতেই এমন অনিরাপদ সড়ক চাই না। সড়ক দুর্ঘটনায় প্রতিদিনের মৃত্যুও কাম্য নয়। এ জন্য সড়কে শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনার কোনো বিকল্প নেই। আলোচনাসভায় উত্থাপিত সুপারিশগুলো বাস্তবায়িত হলে সড়ক দুর্ঘটনার হার অনেকাংশে কমে আসবে বলে আমরা মনে করি। একই সঙ্গে চালকদের লাইসেন্স প্রদানের প্রক্রিয়া দুর্নীতিমুক্ত করতে হবে। দক্ষ ও যোগ্য চালক ছাড়া কারো হাতে লাইসেন্স তুলে দেওয়া যাবে না। গাড়ির ফিটনেসের ব্যাপারে কোনো আপস করা যাবে না। সড়কে নজরদারি জোরদার করতে হবে। অনিয়মকে কোনোভাবেই প্রশ্রয় দেওয়া যাবে না। আমরা মনে করি, দুর্ঘটনা নামের হত্যাকাণ্ড রোধে সরকার দ্রুত কার্যকর পদক্ষেপ নেবে। সমন্বিত গণপরিবহনব্যবস্থাও সড়ক দুর্ঘটনা রোধে কার্যকর হবে বলে আমরা মনে করি।