বিভাগ: ভেতরের পাতা

আজ জকিগঞ্জ মুক্ত দিবস- একাত্তরের ২১ নভেম্বর শ্বাসরুদ্ধকর ১২ ঘন্টা

॥ জেড, এম, শামসুল ॥

২১ নভেম্বর ১৯৭১ সালে এই দিনে জকিগঞ্জ থানা হানাদার মুক্ত হয় । দীর্ঘ ১২ ঘন্টা শ্বাসরুদ্ধকর অবস্থার মধ্য দিয়ে ভারতীয় মিত্র বাহিরে সহযোগিতায় অসংখ্য আহত নিহতের মধ্য দিয়ে জকিগঞ্জ থানা সদর সহ আশ-পাশ এলাকা শত্র“মুক্ত হয়। এই দিনের শ্বাসরুদ্ধকর অবস্থার কথা স্মরণ হলে এখন আঁতকে উঠতে হয়। ঈদের দিন সন্ধ্যার পূর্বেই জকিগঞ্জে সুরমা ও কুশিয়ার নদী পার হয়ে মুক্তিবাহিনী বাংলার গ্রামে গ্রামে প্রবেশ করে। দীর্ঘ ২২৩ দিনের মধ্যে নদীর তীর কি ? নিজের বসত বাড়ীতে শান্তিতে ছিলাম কোন মুহূর্তে বিপদ আসবে। তা নিয়ে উদ্বেগ আর উৎকণ্ঠায় দিন কাটাতে হয়েছে, মাত্র কিছু দিন পূর্বে স্থানীয় লোহার মহল গ্রামের ১২জনকে ধরে নিয়ে ব্রাশফায়ার করে হত্যা করে ঘাতক বাহিনী। এর ২/৩ দিন পরেই এক জুম্মাবার আমার পিতাকে স্থানীয় রাজাকার ও পাঞ্জাবী সেনাবাহিনীর কুখ্যাত বশরাত ক্যাপন্টেন ও তার সহযোগীরা ভুইয়ার মোরা জামে মসজিদে প্রবেশ করে নামাজরত অবস্থায় আটক করে মুসল্লীদের সামনে চরম নির্যাতন চালায় । এসময় স্থানীয় দালাল চক্রের কথা মত ১০ হাজার টাকা উৎকোচ দিয়ে ছাড়িয়ে আনলেও তবু শান্তি ছিল না। দালাল চক্র আমাকে বিচ্ছু নাম দিয়ে হত্যা করার চেষ্টা চালায়। তখন এলাকার কয়েক জন রাজাকার আমাদের জীবন রক্ষায় এবং পাঞ্জাবী ও দালাল চক্রের হাত থেকে লুকিয়ে রাখতে যথেষ্ট সহযোগীতা করেছে। এ সময় অন্যান্য দিনের মত ঈদের দিন বাড়ীতে কিছু সময় কাটিয়ে সন্ধ্যার পূর্বেই বাড়ী থেকে পালিয়ে যাওয়ার মুহূর্তে হঠাৎ আমার বাবার এক বিশ্বস্ত বন্ধুর ভাই জফি মিয়া, বাড়ীর উত্তর পাশে পেলে তিনি আমাদেরকে পালিয়ে না যাওয়ার জন্য উপদেশ দিলেন। এবং বললেন আজ যে ভাবেই হউক মুক্তি যোদ্ধারা জকিগঞ্জে অপরাশেন চালাবে। এই অপারেশন সফল হবে। সত্যি কিছুক্ষণ পর আমাদের বাড়ীর আশ-পাশে পরিচিত অপরিচিত ভিক্ষুক বেশি মুক্তি যোদ্ধাদের আনাগোনা দেখে বুঝতে দেরি হলনা। যে মুক্তিযোদ্ধারা গ্রাম গঞ্জে প্রবেশ করে ফেলছে, তাই আমরা বাড়িতে ফিরে আসার পথে আমার পাশের গ্রামের মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল হামিদ (হামিন্দ আলী), সহ কয়েক জন পেয়ে গেলাম। মনে অনেক সাহস হল । সন্ধ্যার সাথে সাথে বাড়ীতে প্রবেশ করতেই দেখা হল স্থানীয় লোহার মহল, খাপনা, লামার গ্রামের, কয়েক জন মুক্তিযোদ্ধা আমাদের নারিকেল গাছের নিচে বসে আমাদের অপেক্ষা করছেন।
রাত্রি ঘনার সাথে সাথে জকিগঞ্জের তিন দিক ভারত থেকে গুলি ও মর্টারের শব্দ ভেসে আসতে শুরু করল। নদীর তীরবর্তী বাড়ীগুলো থেকে লোকজন স্থাবর অস্থাবর জিনিস পত্র ফেলে নিরাপদ আশ্রয় খোজতে শুরু করল। নদীর তীরে অবস্থিত ব্যাংকারগুলো ছেড়ে রাজাকার ও পাঞ্জাবীরা জকিগঞ্জ মুখি হয়ে স্থান ত্যাগ করতে শুরু করল। এসময় জকিগঞ্জে ভিতর ও বাহির থেকে মরণপণ যুদ্ধে ভোর ৫টায় জকিগঞ্জ থানা সদর শত্র“ মুক্ত হয়। বিকাল ৫টা থেকে ভোর ৫টা পর্যন্ত এ ১২ ঘন্টা হানাদার বাহিনীর সাথে মুক্তিযোদ্ধাদের যুদ্ধের ডামাডোলে এবং জকিগঞ্জ এলাকা ভূমিকম্পের মত কম্পিত হয়ে উঠেছিল। এ অবস্থায় জীবন বাজি রেখে মুক্তিযোদ্ধারা জকিগঞ্জ শত্র“ মুক্ত করে। এ সময় ভারতীয় মিত্রবাহিনী মেজর চমন লাল সহ অসংখ্য মুক্তি যোদ্ধা হতাহত হন। জকিগঞ্জ শত্র“ মুক্ত হওয়ার খবর ছড়িয়ে পড়লে দেশ প্রেমিক জনতা ঘর ছেড়ে নদী তীর বর্তী অসংখ্য ব্যাংকারে হানা দেয়। এবং পাঞ্জাবী রাজাকারদের আটক করে। স্বাধীনতা প্রেমিক জনতার ভীড় জমে উঠে থানা সদরে এদিন আটগ্রামে হানাদার বাহিনীর সাথে মুখোমুখি রক্তক্ষয়ী যুদ্ধ হয়। এ যুদ্ধে অনেক হানাদার ও মিত্রবাহিনী মুক্তিযোদ্ধারা প্রাণ হারান। ২২ নভেম্বর হানাদার বাহিনী কানাইঘাট এর দিকে পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়। জকিগঞ্জ হানাদার মুক্ত হওয়ার পর ২২ নভেম্বর সকালে জকিগঞ্জ থানা সদরে প্রথম প্রবেশ করেন, তৎকালিন এম,পি, এম,এর লতিফ, ইছমত আহমদ চৌধুরী, আব্দুল মঈদ চৌধুরী, অন্যান্য নেতৃবৃন্দ। এদিন জকিগঞ্জ সরকারী উচ্চ বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে। এক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে দাউদ হায়দারকে জকিগঞ্জের বেসামরিক প্রশাসক নিয়োগ করেন এবং শত্র“ মুক্ত এলাকায় শান্তি শৃংখলা বজায় রাখতে বীর মুক্তিযোদ্ধা স্পেশাল কমান্ডার এনাম চৌধুরীকে প্রধান করে মুক্তিযোদ্ধা স্পেশাল কমান্ডার মাসুক উদ্দিন আহমেদকে উপাদান ও খলিল উদ্দিনকে সহকারী কামান্ডার নিয়োগ করে প্রশাসনিক কর্মকান্ড শুরু করা হয়। এদিনে জকিগঞ্জ সরকারী উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে ঘোষণা করা হয়্ মহান মুক্তিযুদ্ধে জকিগঞ্জই প্রথম মুক্ত অঞ্চল। এদিন আনুষ্ঠানিক ভাবে জাতীয় পতাকা উত্তোলন ও প্রশাসক নিয়োগ এভাবে সম্পূর্ণ হয়েছিল। এদিনই জকিগঞ্জ হানাদার বাহিনীর সাথে লড়াইয়ের শেষ ঘন্টা বাজল।
এ দিন উপলক্ষে জকিগঞ্জ উপজেলা সদরসহ বিভাগীয় পর্যায়ে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হবে। ভোর থেকে জকিগঞ্জ থানা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ কমান্ডের উদ্যোগে জকিগঞ্জ উপজেলায় র‌্যালি ও আলোচনা সভা ছাড়াও বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করেছে।
লেখক : মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক ও সাংবাদিক।

দক্ষিণ সুরমায় দুর্নীতি মুক্তকরণ বাংলাদেশ ফোরামের মতবিনিময় সভা ॥ আয়ের সাথে সংগতিহীন লোকদের সংসদ নির্বাচনে অংশগ্রহণ নিষিদ্ধ করুন

দুর্নীতি মুক্তকরণ বাংলাদেশ ফোরামের উদ্যোগে দক্ষিণ সুরমা উপজেলা কমিটি গঠন উপলক্ষে গত ১৮ নভেম্বর শনিবার সন্ধ্যা ৬ টায় রেল স্টেশন রোডস্থ লেইছ সুপার মার্কেট প্রাঙ্গণে এক বিরাট মতবিনিময় সভায় অনুষ্ঠিত হয়। বিশিষ্ট সমাজসেবক ও ব্যবসায়ী নেতা আব্দুল ওয়াহিদের বিস্তারিত

সিলেট বিভাগ যুব কল্যাণ সংস্থা’র বিভাগীয় আহ্বায়ক কমিটি গঠন

সিলেট বিভাগ যুব কল্যাণ সংস্থা’র উদ্যোগে ১১ নভেম্বর শনিবার সন্ধ্যা ৬টায় সিলেট নগরীর দরগা গেইটস্থ কেন্দ্রীয় মুসলিম সাহিত্য সংসদ’র সাহিত্য আসর কক্ষে সিলেট বিভাগের যুব আত্মকর্মী ও যুব সংগঠকদের নিয়ে সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত হয়। সংস্থা’র প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি বিস্তারিত

জাতীয় শ্রমিকলীগের ওয়ার্ড কমিটি গঠনের লক্ষ্যে সভা

বাংলাদেশ জাতীয় শ্রমিক লীগের বরইকান্দি ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ড শাখার কমিটি গঠন উপলক্ষে এক আলোচনা সভা গত শুক্রবার রাতে সংগঠনের অস্থায়ী কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত হয়।
ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের কৃষি বিষয়ক সম্পাদক সোনা মিয়ার বিস্তারিত

দাঁড়কাক’র ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্পেইন

সামাজিক সেবামূলক সংগঠন দাঁড়কাক এর উদ্যোগে আমদের ইস্কুল (সিলেট রেলওয়ে স্টেশন কলোনিতে) প্রাঙ্গণে গত ১২ নভেম্বর রবিবার বিকেলে এক ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প অনুষ্ঠিত হয়।
দাঁড়কাকের সভাপতি নিলয় বিশ্বাস নিল ফ্রী মেডিকেল বিস্তারিত

দক্ষিণ সুরমা সমাজ কল্যাণ সমিতির কেন্দ্রিয় কমিটি গঠিত

দক্ষিণ সুরমা সমাজকল্যাণ সমিতির কেন্দ্রিয় কমিটির সভা গত ১২ নভেম্বর রবিবার রাতে স্টেশন রোডস্থ কার্যালয়ে ২০১৭-১৮ সালে কেন্দ্রীয় কার্যকরী কমিটি গঠন উপলক্ষে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।
সমিতির সভাপতি ডাঃ ময়নুল ইসলামের সভাপতিত্বে বিস্তারিত

আটাব নির্বাচনে গণতান্ত্রিক ঐক্যফ্রন্ট কার্যনির্বাহী প্যানেলের বিজয়

এসোসিয়েশন অব ট্রাভেলস্ এজেন্টস অব বাংলাদেশ (আটাব) ২০১৭-২০১৯ সেশনের নির্বাচনে বর্তমান ক্ষমতাসীন এস এম মঞ্জুর মোর্শেদ মাহবুব-এর প্যানেল গণতান্ত্রিক ঐক্য ফ্রন্ট পূর্ণ প্যানেলে নিরঙ্কুশভাবে জয় লাভ করেছে। সম্প্রতি ঢাকাসহ বাংলাদেশে ৩টি জোনে একযোগে এ নির্বাচন বিস্তারিত

মোহনা সাংস্কৃতিক সন্ধ্যা অনুষ্ঠিত

ঐতিহ্যবাহী মুরারিচাঁদ কলেজ সিলেটের মোহনা সাংস্কৃতিক সংগঠনের মোহনা সাংস্কৃতিক সন্ধ্যা-২০১৭ শনিবার (১১ নভেম্বর) বিকাল ৪টায় নগরীর রিকাবীবাজার কবি নজরুল অডিটোরিয়ামে অনুষ্ঠিত হয়। বিস্তারিত

এমপি কেয়া চৌধুরীর শয্যাপাশে যুক্তরাজ্য আওয়ামীলীগের সেক্রেটারী

সিলেট-হবিগঞ্জ আসনের সংরক্ষিত নারী সংসদ সদস্য আমাতুল কিবরিয়া কেয়া চৌধুরী অসুস্থ। তিনি বর্তমানে সিলেট এম.এ.জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আছেন।
এমপি কেয়া চৌধুরীর অসুস্থর খবর পেয়ে গত বিস্তারিত

২৫ নভেম্বর পরিষদের অধিবেশন সফল করে তুলুন —–মাওলানা আতাউল্লাহ আমীন

বাংলাদেশ খেলাফত মজলিস সিলেট মহানগর শাখার দায়িত্বশীল সভা শুক্রবার লালদীঘিরপারস্থ মজলিস কার্যালয়ে সংগঠনের কেন্দ্রীয় সদস্য সিলেট মহানগর শাখার সভাপতি মাওলানা সিরাজুল ইসলাম সিরাজী সভাপতিত্বে মহানগর সাধারণ সম্পাদক আলহাজ¦ মাওলানা এমরান আলমের পরিচালনায় বিস্তারিত