মৌলভীবাজারের সাতটি উপজেলায় ৬ জন আওয়ামীলীগের পুরনো একজন নতুন মুখ

0
48

মৌলভীবাজার থেকে সংবাদদদাতা :
দেশে দ্বিতীয় ধাপের উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে মৌলভীবাজারের সাতটি উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে পুনরায় ৬জন ও ১ জন নতুন মুখ হিসেবে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেয়েছেন।
রবিবার (১০ ফেব্র“য়ারী) দ্বিতীয় ধাপের নির্বাচনের জন্য চেয়ারম্যান প্রার্থীদের নাম চূড়ান্ত করে দলের মনোনয়ন বোর্ড।
মৌলভীবাজার জেলা সদরসহ সাতটি উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের প্রার্থী যারা হলেন:
নতুন মুখ হিসেবে মৌলভীবাজার সদর উপজেলায় মো. কামাল হোসেন। বর্তমানে তিনি মৌলভীবাজার জেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও চেম্বার অ্যান্ড কমার্সের সভাপতির দায়িত্ব পালন করছেন।
বড়লেখা উপজেলা : রফিকুল ইসলাম সুন্দর। তিনি বর্তমানে বড়লেখা উপজেলা চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করছেন।
জুড়ী উপজেলা : গুলশান আরা মিলি। বর্তমানে জুড়ী উপজেলা চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করছেন।
কুলাউড়া উপজেলা : আসম কামরুল ইসলাম। তিনি কুলাউড়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলার তিন বারের শ্রেষ্ঠ উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলার প্রাথমিক শিক্ষা কমিটির সভাপতির দায়িত্ব পালন করছেন।
কমলগঞ্জ উপজেলায়- অধ্যাপক রফিকুর রহমান। তিনি বাংলাদেশ কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য ও কমলগঞ্জ উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করছেন।
শ্রীমঙ্গল উপজেলা- রনধীর কুমার দেব। তিনি বর্তমানে শ্রীমঙ্গল উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করছেন।
রাজনগর উপজেলায়- আছকির খান। বর্তমানে রাজনগর উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করছেন তিনি।
এর আগে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে সাতটি উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে স্বস্ব প্রার্থীরা আওয়ামী লীগের দলীয় মনোয়ন ফরম সংগ্রহ করে জমাদান করলেও শেষ পর্যন্ত নৌকার প্রার্থী হিসেবে চূড়ান্তভাবে দলীয় মনোনীত করা হয়।
এদিকে জেলার সাতটি উপজেলা নির্বাচনে পুনরায় ৬জন চেয়ারম্যান ও একজন নতুন মুখ হিসেবে আওয়ামী লীগের প্রার্থী ঘোষণা করার পর থেকে তাদের অনুসারীদের মধ্যে আনন্দ বিরাজ করছে।
ইতোমধ্যে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে অনেকেই তাদেরকে অভিনন্দন জানানো শুরু করেছেন।
প্রসঙ্গত: দ্বিতীয় ধাপে ১২৯টি উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করা হয়েছে। আগামী ১৮ মার্চ এ নির্বাচনের ভোট গ্রহণ হবে। এ নির্বাচনে মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ দিন ১৮ ফেব্র“য়ারি। মনোনয়নপত্র বাছাইয়ের শেষ দিন ২০ ফেব্র“য়ারি। আর প্রার্থীতা প্রত্যাহারের শেষ দিন ২৭ ফেব্র“য়ারী।