বিশ্বনাথে দুই গ্রামে পৃথক সংঘর্ষে নারীসহ আহত ২৫

0
20
প্রতিকী ছবি।

বিশ্বনাথ থেকে সংবাদদাতা :
জমিজমা সংক্রান্ত ও পূর্ব বিরোধের জেরে বিশ^নাথ উপজেলার দেওকলস ইউনিয়নের নয়াসৎপুর ও রামপাশা ইউনিয়নের মনোহরপুর গ্রামে পৃথক সংঘর্ষে কালেজছাত্র, মধ্যস্থতাকারী ও নারীসহ কমপেক্ষ ২৫জন আহত হয়েছেন। রবিবার সকাল ১১টারদিকে নয়া সৎপুর গ্রামের তালেব আলী ও তার ছোটভাই তছলিম আলীর মধ্যে ধানি জমির মাটি কাটা নিয়ে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। আর এতে নারীসহ ১৫জন আহন। অন্যদিকে ফুটবল খেলার চাঁদা তোলা নিয়ে সকাল ১০টায় রামপাশা ইউয়িনের মনাহরপুর গ্রামের ইউছুফ আলী ইছু ও অসীম আলী পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষে কলেজছাত্রসহ ১০জন আহত হয়েছেন। গুরুতর আহত নয়াসৎপুরের এনাম উদ্দিন ও সুনাম উদ্দিন এবং মনোহরপুরের আরও দু’জনসহ ৪জনকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, দেওকলস ইউনিয়নের নয়াসৎপুর গ্রামের দুই ভাইয়ের মধ্যে জমি-জমা সংক্রান্ত বিরোধ ছিল। রবিবার সকালে পৈতৃক জমিতে মাটি কাটা নিয়ে দুই ভাইয়ের মধ্যে সংঘর্ষ বাঁধে। খবর পেয়ে থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এ ঘটনায় উভয় পক্ষে আহতরা হলেন, এনাম উদ্দিন (২৬), আইন উদ্দিন (৪৫), সুফিয়া বেগম (৪৮), আরবিনা বেগম (২৮), শানুর আলী (৩৫), মুক্তার আলী (১৭), সুনাম উদ্দিন (২১), ইমাম উদ্দিন (১৫), সফিনা বেগম (৪৫) ও আছকারুন বেগম (৫০), সাজন মিয়া (২৫), রাজন মিয়া (২৮) ও আলমগীর (৩৫)।
এদিকে পূর্ব বিরোধের জেরে ফুটবল খেলার চাঁদা তোলাকে কেন্দ্র করে মনোহরপুর গ্রামে দু’পক্ষের সংঘর্ষে উভয় পক্ষে ইউছুফ আলী ইছু (৫০), তার ছেলে আব্দুল ওয়াহিদ (২৫), দ্বাদশ শ্রেনীর ছাত্র জাহেদ মিয়া (১৯), রাসেল আহমদ (১৭), অসীম আলী (২৬), শাহীন আহমদ (২৫) আহত হন।
এ প্রসঙ্গে বিশ্বনাথ থানার ওসি (তদন্ত) দুলাল আকন্দ বলেন, মামলা দেওয়া হলে আইনী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।