কিংবদন্তি কৌতুক অভিনেতা টেলি সামাদ আর নেই

0
8

কাজিরবাজার ডেস্ক :
অভিনয়ে মানুষকে জীবনভর বিমল আনন্দ দেয়া কিংবদন্তিতুল্য কৌতুক অভিনেতা টেলি সামাদ আর নেই। বেশ কিছুদিন ধরেই অসুস্থ বরেণ্য এ অভিনেতা ৭৪ বছর বয়সে পরিবার-পরিজন আর অগণিত ভক্ত-স্রতাদের কাঁদিয়ে পাড়ি দিলেন অধরাপুরের দিকে।
ঢাকার স্কয়ার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শনিবার দুপুরে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি। পিতার মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেছেন কন্যা সোহেলা সামাদ কাকলী।
তিনি জানান, দীর্ঘদিন ধরেই নানা অসুখে ভুগছিলেন তার বাবা। শুক্রবার অবস্থা গুরুতর হলে তাকে নেওয়া হয় স্কয়ার হাসপাতালে। এখানেই চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়েছে।
চলচ্চিত্রে কৌতুকী চরিত্রে অভিনয় করে ‘টেলি সামাদ’ পরিচয়ে খ্যাতি পাওয়া এ অভিনেতার নাম আবদুস সামাদ। টেলিভিশন দিয়ে চলচ্চিত্রে পা রাখায় তার এই নাম হয়ে যায়, যা তিনি নিজে আর বদলাননি।
মুন্সীগঞ্জ শহরের নয়াগাঁও এলাকার সন্তান সামাদ বেড়ে উঠেছেন সাংস্কৃতিক পরিমণ্ডলে। বড়ভাই চারুশিল্পী আব্দুল হাইকে অনুসরণ করে ভর্তি হন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলায়।
১৯৭৩ সালে ‘কার বউ’ চলচ্চিত্র দিয়ে অভিনয় জগতে পা রাখেন সামাদ। এরপর চার দশকে ৬০০ চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন তিনি। তার অভিনীত সর্বশেষ চলচ্চিত্র ২০১৫ সালে মুক্তি পাওয়া ‘জিরো ডিগ্রী’।
কমেডিয়ান হিসেবে দর্শক টেলি সামাদকে চিনলেও প্রায় ৪০টির বেশি চলচ্চিত্রে গানও গেয়েছেন টেলি সামাদ। ‘মনা পাগলা’ ছবির সংগীত পরিচালনাও করেন বরেণ্য এ অভিনেতা।
গত ডিসেম্বর মাসে বুকে ইনফেকশন নিয়ে স্কয়ার হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন টেলি সামাদ। তখন আইসিইউতেও ছিলেন কিছু দিন।
২০১৭ সালে যুক্তরাষ্ট্রে একবার বাইপাস সার্জারিও করা হয় তার। এরপর ২০১৭ সালের ২৭ সেপ্টেম্বর তিনি কিছুটা সুস্থ হয়ে দেশে ফেরেন।
অসুস্থ টেলি সামাদের শারীরিক অবস্থার খোঁজ নিয়ে তার চিকিৎসায় উদ্যোগী হয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ২০১৪ সালে এই অভিনেতার হাতে ২০ লাখ টাকার সঞ্চয়পত্র তুলে দেন।