ভিটামিন ‘এ’ আজ খাওয়ানো হচ্ছে না শিশুদের

0
24

কাজিরবাজার ডেস্ক :
পূর্বঘোষিত সময় অনুযায়ী আজ শনিবার সারাদেশে শিশুদের ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল খাওয়ানোর কথা থাকলেও সেটা স্থগিত করেছে সরকার। সব প্রস্তুতি সম্পন্ন হওয়ার দুদিন আগে জনস্বাস্থ্য পুষ্টি প্রতিষ্ঠান থেকে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে স্থগিতের বিষয়টি জানানো হয়। কারণ না জানালেও মূলত ক্যাপসুলের মান নিম্নমানের হওয়ায় কর্মসূচি আকস্মিকভাবে স্থগিত করা হয়।
গত সপ্তাহে ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল খাওয়ানোর কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়। এরপর দেশের বিভিন্ন এলাকায় ক্যাপসুল পাঠানোও হয়। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মাঠপর্যায়ের কর্মী ও কর্মকর্তারা ক্যাপসুলের মান নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করে বিষয়টি স্বাস্থ্য অধিদপ্তরকে জানালে বুধবার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় এই কর্মসূচি স্থগিতের ঘোষণা দেয়।
এই ঘটনা তদন্তে দুটি পৃথক কমিটি গঠন করেছে সরকার। শুক্রবার ভিটামিন ‘এ’ স্থগিতের বিষয়ে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ প্রতিমন্ত্রী মুরাদ হাসান বলেন, মামলা করে ভারতীয় একটি অখ্যাত কোম্পানির কাছ থেকে নিম্নমানের ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাপসুল কিনতে বাধ্য করা হয়েছে। ক্যাপসুলের মান নিয়ে প্রশ্ন ওঠায় ক্যাম্পেইন আপাতত স্থগিত করা হয়েছে।
এ বিষয়ে তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার পাশাপাশি শিগগিরই ‘এ’ প্লাস ক্যাম্পেইন শুরু হবে বলেও জানান প্রতিমন্ত্রী।
ভিটামিন ‘এ’ দেহের স্বাভাবিক বৃদ্ধিতে সহায়তা করে, রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায় এবং শিশুমৃত্যুর ঝুঁকি কমায়। এই কারণে বাংলাদেশ সরকারের স্বাস্থ্য নীতিমালা অনুযায়ী, ভিটামিন ‘এ’ এর অভাব পূরণে বছরে দুইবার সম্পূরক খাদ্য হিসেবে ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল খাওয়ানো হয়।
আগের ঘোষণা অনুযায়ী, শনিবার সারাদেশে জাতীয় ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাম্পেইনের দ্বিতীয় রাউন্ডে ছয় মাস থেকে পাঁচ বছর বয়সী দুই কোটির বেশি শিশুকে ভিটামিন এ ক্যাপসুল খাওয়ানোর কথা ছিল।
এই কর্মসূাচিতে ছয় থেকে ১১ মাস বয়সী সব শিশুকে একটি করে নীল রঙের ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল এবং ১২ থেকে ৫৯ মাস বয়সী সব শিশুকে একটি করে লাল রঙের ‘এ’ ক্যাপসুল খাওয়ানোর কথা।