জিম্বাবুয়েকে ২১৮ রানে হারাল বাংলাদেশ

0
11
Bangladesh cricketer Mehidy Hasan (R) celebrates with his teammates after the dismissal of the Zimbabwe cricketer Peter Moor (L) during the fifth day of the second Test cricket match between Bangladesh and Zimbabwe at the Sher-e-Bangla National Cricket Stadium in Dhaka on November 15, 2018. (Photo by MUNIR UZ ZAMAN / AFP) (Photo credit should read MUNIR UZ ZAMAN/AFP/Getty Images)

স্পোর্টস ডেস্ক :
মেহেদী হাসান মিরাজের দারুণ বোলিংয়ে ঢাকা টেস্টে জিম্বাবুয়েকে ২১৮ রানের বড় ব্যবধানে হারিয়ে দুই ম্যাচের সিরিজ ১-১ সমতায় শেষ করেছে বাংলাদেশ। অপরাজিত ডাবল সেঞ্চুরির সুবাদে ম্যাচসেরা হয়েছেন মুশফিকুর রহিম। সিরিজসেরার পুরষ্কারটা গেছে তাইজুল ইসলামের ঝুলিতে। দুই ম্যাচে মোট ১৮ উইকেট নিয়েছেন এই বাঁহাতি স্পিনার।
সিলেটে সিরিজের প্রথম টেস্টে জিম্বাবুয়ের কাছে ১৫১ রানের বড় ব্যবধানে হেরে গিয়েছিল বাংলাদেশ। ফলে এই ম্যাচটি ছিল তাদের জন্য বাঁচা-মরার লড়াই। মিরপুরে ৪৪৩ রানের লক্ষ্য তাড়া করা জিম্বাবুয়েকে আজ (বৃহস্পতিবার) পঞ্চম দিনে ২২৪ রানে থামিয়ে দিলেন মিরাজ-তাইজুলরা। ২১৮ রানের বড় ব্যবধানে বাংলাদেশ পেল জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ষষ্ঠ, সবমিলিয়ে নিজেদের টেস্ট ইতিহাসের একাদশ জয়।
রানের ব্যবধানে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে এটি বাংলাদেশের দ্বিতীয় বড় জয়। শুধু জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে নয়, নিজেদের টেস্ট ইতিহাসেরও দ্বিতীয় সেরা জয় এটি। তাতে চলতি বছরে টেস্টের বাজে ফলাফলের বৃত্ত থেকে বেরিয়ে এল টাইগাররা। এর আগে পাঁচ ম্যাচের চারটিতেই হেরেছিল তারা। বছরের শুরুতে শ্রীলংকার বিপক্ষে দুই ম্যাচের সিরিজে তারা হেরে যায় ১-০ ব্যবধানে। এরপর ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে ২-০ ব্যবধানে হোয়াইটওয়াশ। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষেও হারেই শুরু হয় তাদের।
বড় লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে দুই উইকেটে ৭৬ রান সংগ্রহ করে চতুর্থ দিনের খেলা শেষ করেছিল জিম্বাবুয়ে। আজ পঞ্চম দিনে ৭ উইকেট প্রয়োজন ছিল বাংলাদেশের। প্রথম সেশনে মোস্তাফিজুর রহমান আর তাইজুল ইসলাম একটি করে উইকেট নেন। মোস্তাফিজ ফেরান শন উইলিয়ামসকে (১৩)। সিকান্দার রাজার (১২) উইকেটটি নেন তাইজুল।
মধ্যাহ্ন বিরতির পর এক স্পেলেই জিম্বাবুয়েকে গুঁড়িয়ে দেন মিরাজ। পিটার মুর (১৩), ডোনাল্ড তিরিপানো (০) আর ব্র্যান্ডন মাভুতা (০) আর কাইল জারভিসকে (০) তুলে নিয়ে বাংলাদেশকে বড় জয় এনে দেন এই অফস্পিনার। ৫ উইকেট নিয়ে স্বাগতিকদের পক্ষে সফল বোলার তিনিই। এছাড়া তাইজুল নিয়েছেন ২ উইকেট।
মুশফিকুর রহিমের অনবদ্য ডাবল সেঞ্চুরি আর মুমিনুল হকের সেঞ্চুরিতে ৭ উইকেটে ৫২২ রান তুলে প্রথম ইনিংস ঘোষণা করেছিল বাংলাদেশ। জবাবে ব্রেন্ডন টেলরের শতকের পরও ৩০৪ রানে অলআউট হয়ে ফলোঅনে পড়ে জিম্বাবুয়ে। তবে তাদের দ্বিতীয়বার ব্যাটিংয়ে না পাঠিয়ে লিটন-ইমরুলকে ব্যাট হাতে পাঠিয়ে দেন টাইগার অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। নিজে তুলে নেন ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় টেস্ট সেঞ্চুরি। এরপর ৬ উইকেটে ২২৪ রান তুলে দ্বিতীয় ইনিংস ঘোষণা করে বাংলাদেশ।
সংক্ষিপ্ত স্কোর
বাংলাদেশ প্রথম ইনিংস: ৫২২/৭ ডি.
জিম্বাবুয়ে প্রথম ইনিংস: ৩০৪
বাংলাদেশ দ্বিতীয় ইনিংস: ২২৪/৬ ডি.
জিম্বাবুয়ে দ্বিতীয় ইনিংস: ২২৪ (টেলর ১০৬*, ব্রায়ান চারি ৪৩, মাসাকাদজা ২৫, উইলিয়ামস ১৩; মেহেদী মিরাজ ৫/৩৮, তাইজুল ২/৯৩, মোস্তাফিজ ১/১৯)
ফল: বাংলাদেশ ২১৮ রানে জয়ী
ম্যাচসেরা: মুশফিকুর রহিম (বাংলাদেশ)
সিরিজ: ১-১ সমতায় শেষ
সিরিজসেরা: তাইজুল ইসলাম (বাংলাদেশ)।